মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কার্যবিবরণী ও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির এপ্রিল/২০১৫ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৯/০৪/২০১৫ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য মার্চ /২০১৫ খ্রিঃ ও বিগত ফেব্রম্নয়ারী /২০১৫ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  মার্চ/১৫ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়।

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ইউপি চেয়ারম্যানগণকে ধন্যবাদ জানানো হয়। চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য মার্চ ২০১৫ মাসে ৬১২টি অভিযানের মাধ্যমে ১২,১৪,৩০০/-টাকার পণ্য আটক ও ৫জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়। বিগত ফেব্রম্নয়ারী ২০১৫ মাসে ৫৬৯ টি অভিযানের মাধ্যমে ১২,০৬,৪৫০/- টাকার পণ্য আটক করা হয়েছে। 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানোহয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, এ মাসে চোরাচালান অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন প্রকার ভারতীয় হুইস্কি, জটগাজা, মসলা,স্কফ সিরাপ, ভারতীয় কফ সিরাপ, ভারতীয় বাই সাইকেল, ইয়াবা ট্যাবলেট, ফেন্সিডিলসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য উদ্ধার ও ৫জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয় মর্মে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক।  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন। 

 

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,চোরাচালান প্রতিরোধে জনগণকে নিয়ে নিয়মিত জনসচেতনমূলক কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে। 

 

জনাব মোঃ আবদুর রব, অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবিসহ সকলসত্মরের জনসাধারণসার্বিক সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ জানান। মার্চ/২০১৫ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় হুইস্কি-১২ বোতল, ফেন্সিডিল-১৬৪ বোতল, স্কপ সিরাপ-৪০ বোতল, গাঁজা-০৪ কেজি দেশী মদ-১০ লিটার উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ১৫ টি মামলা করা হয় ।

 

সভাপতি জানান যে, অত্র উপজেলায় চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর ভূমিকা রাখার বিষয়ে আরো দায়িত্বশীল হতে হবে। এলাকায় বহিরাগত লোক দেখলে তাদের পরিচয় জানতে হবে। জনগণের সাথে সুসর্ম্পক রেখে কাজ করলে সহজে সহযোগিতা পাওয়া যাবে। মালামালসহ আসামী ধরতে হবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

১. চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

 

 

২.  চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী

     অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

     বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি

     কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও 

     আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   

     ইউনিয়নের চেয়ারম্যান

     বৃন্দ।

 

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, মুকুন্দপুর কর্তৃক দাখিলকৃত মার্চ ২০১৫ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (মার্চ/১৫)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

জিডি এন্ট্রির

সংখ্যা

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ৯০বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-১০৪ বোতল

ভারতীয়  গাজা- ১০ কেজি

বাংলাদেশী মাছ-৩৮ কেজি

৪,৬৯,০০০/-

--

৪,৬৯,০০০/-

০১

 

১৫

সিংগারবিল

বিভিন্ন প্রকার মসলা-২৭ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮০ বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-১১১ বোতল

গাজা-২.৮ কেজি

১,৫০,৮০০/-

--

১,৫০,৮০০/-

০৪

 

১৪

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১১০বোতল

ভারতীয় জটগাজা-৪ কেজি

ভারতীয় বাই সাইকেল ১টি

১,৩৪,০০০/-

--

১,৩৪,০০০/- 

--

 

০৬

লক্ষ্মীপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৪০ বোঃ

ভারতীয়  স্কফ সিরাপ-৭০ বোতল

২২,৫০০/-

--

২২,৫০০/-  

--

 

০১

 

বিষ্ণপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৬২ বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-৫০ বোতল

গাজা-৩০ কেজি

ইয়াবা ট্যাবলেট-২১ টি

 

৪,৩৮,০০০/-

 

--

 

৪,৩৮,০০০/-  

 

--

 

 

 

০৫

                  সর্বমোট

১২,১৪,৩০০/-

 

১২,১৪,৩০০/-

০৫

 

৪১

 

 

বিজয়নগর থানার পুলিশ কর্তৃক মার্চ/১৫ মাসে অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণঃ

ক্রমিক নং

উদ্ধারকৃত মালামালের বিবরণ

মামলার বিবরণ

আসামীর সংখ্যা

ভারতীয় হুইস্কি-১২ বোতল, স্কপ সিরাপ-৪০ বোতল, গাঁজা-০৪ কেজি,  দেশী মদ-১০ লিটার,ভারতীয় ফেন্সিডিল-১৬৪ বোতল উদ্ধার করা হয়।

মাদকদ্রব্য আইনে-১৫টি

১২জন

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৫-                                                                   তারিখঃ ১৭/০৫/২০১৫ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

1.       জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                        উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

2.      জনাব মোঃ আবুল কাসেম                        এস আই, বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

3.      জনাব নাঃ সুবেদার আলী আরশাদ               কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

4.       জনাব মোঃ হামিদুল হক                         চেয়ারম্যান, চম্পকনগর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

5.      জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                    চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

6.      জনাব মোঃ শফিকুর রহমান                     উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

7.      জনাব মোঃ তারা মিয়া                            কমান্ডার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

8.      জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন           উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

9.      জনাব কাজী হারিসুর রহমান                     সভাপতি, উপজেলা কমিউনিটিং পুলিশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

10.   জনাব মোঃ হারম্নন অর রশিদ                   উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

11.   জনাব  ফরিদা আক্তার                            উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

12.   জনাব মোঃ আল মামুন                           চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

13.  জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                    চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির মার্চ/২০১৫ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ৩১/০৩/২০১৫ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য ফেব্রম্নয়ারী /২০১৫ খ্রিঃ ও বিগত জানুয়ারী /২০১৫ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  ফেব্রম্নয়ারী/১৫ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়।

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ইউপি চেয়ারম্যানগণকে ধন্যবাদ জানানো হয়। চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য ফেব্রম্নয়ারী ২০১৫ মাসে ৫৬৯টি অভিযানের মাধ্যমে ১২,০৬,৪৫০/- টাকার পণ্য আটক করেন। বিগত জানুয়ারী ২০১৪ মাসে ৬২২ টি অভিযানের মাধ্যমে ১০,৩৭,৪০০/- টাকার পণ্য আটক করা হয়েছে। 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানোহয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, এ মাসে চোরাচালান অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন প্রকার ভারতীয় হুইস্কি, জটগাজা, মসলা,স্কফ সিরাপ, ভারতীয় পটেটো চিপস, ভারতীয় মটর সাইকেল, ফেন্সিডিল এবং বাংলাদেশী মিশ্রসার ও মাছসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য উদ্ধার করা হয় মর্মে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন। 

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,চোরাচালানের মাধ্যমে যেসব জিনিষ আমাদের দেশে আসছে তা দ্বারা আমাদের যুব সমাজ নষ্ঠ হয়ে যাচ্ছে। বিভিন্ন স্পষ্ট প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন। 

 

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,চোরাচালান প্রতিরোধে জনগণকে নিয়ে নিয়মিত জনসচেতনমূলক কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে। 

 

জনাব মোঃ মেজবাহ উদ্দিন ভূঞা, অফিসার ইনর্চাজ (তদমত্ম), বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবিসহ সকলসত্মরের জনসাধারণসার্বিক সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ জানান। ফেব্রম্নয়ারী/২০১৫ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় হুইস্কি-৭৯ বোতল, ফেন্সিডিল-১৩৩ বোতল, রিকোডেক্স সিরাপ-৫৫ বোতল, গাঁজা-১২৭ কেজিসহ মাইক্রো-১টি উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ১৯ টি মামলা করা হয় ।

 

সভাপতি জানান যে, অত্র উপজেলায় চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর ভূমিকা রাখার বিষয়ে আরো দায়িত্বশীল হতে হবে। এলাকার জনগণের সাথে সুসর্ম্পক রেখে কাজ করলে সহজে সহযোগিতা পাওয়া যাবে। সীমামত্ম এলাকার দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি অন্যান্য বিষয়ে ও নজর রাখতে হবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

১. চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

২.  চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

৩. সীমামত্মবর্তী এলাকায় অভিযান কালে চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে আসামী গ্রেফতার করার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী

     অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

     বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি

     কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও 

     আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   

     ইউনিয়নের চেয়ারম্যান

     বৃন্দ।

 

 

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, মুকুন্দপুর কর্তৃক দাখিলকৃত ফেব্রম্নয়ারী ২০১৫ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (ফেব্রম্নয়ারী/১৫)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

জিডি এন্ট্রির

সংখ্যা

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ৯০বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-১০৪ বোতল

ভারতীয়  গাজা- ১০ কেজি

বাংলাদেশী মাছ-৩৮ কেজি

১,৬৫,৫৫০/-

২৭,২০০/-

১,৯২,৭৫০/-

--

১০

--

সিংগারবিল

বিভিন্ন প্রকার মসলা-২৭ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮০ বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-১১১ বোতল

গাজা-২.৮ কেজি

ভারতীয় বিড়ি-১৮৮০ প্যাকেট

৩,০৮,৫০০/-

--

৩,০৮,৫০০/-

--

১৯

--

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১১০বোতল

ভারতীয় জটগাজা-৪ কেজি

বাংলাদেশী মিশ্র সার-০১ বসত্মা

১,১১,৫০০/-

১,৭০০/-

১,১৩,২০০/- 

--

০৭

--

লক্ষ্মীপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৪০ বোঃ

 ভারতীয়  ফেন্সিডিল-৯০ বোতল

ভারতীয়  স্কফ সিরাপ-৭০ বোতল

ভারতীয়  মটর সাইকেল-০১ টি

২,৮২,৫০০/-

--

২,৮২,৫০০/-  

--

০১

০১

 

বিষ্ণপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৬২ বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-৫০ বোতল

গাজা-৩০ কেজি

ভারতীয় পটেটো চিপস-৯৮০ প্যাঃ

 

৩,০৯,৫০০/-

 

--

 

৩,০৯,৫০০/-  

 

--

 

০৭

 

--

                  সর্বমোট

১১,৭৭,৫৫০/-

২৮,৯০০/-

১২,০৬,৪৫০/-

--

৪৪

০১

 

 

বিজয়নগর থানার পুলিশ কর্তৃক ফেব্রম্নয়ারী/১৫ মাসে অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণঃ

ক্রমিক নং

উদ্ধারকৃত মালামালের বিবরণ

মামলার বিবরণ

আসামীর সংখ্যা

ভারতীয় হুইস্কি-৭৯ বোতল, রিকোডেক্স সিরাপ-৫৫ বোতল, গাঁজা-১২৭কেজি,  মাইক্রো-১টি,ভারতীয় ফেন্সিডিল-১৩৩ বোতল উদ্ধার করা হয়।

মাদকদ্রব্য আইনে-১৯টি

২১জন

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৫-                                                                   তারিখঃ ১৫/০৪/২০১৫ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

14.   জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                        উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

15.   জনাব মোঃ আবুল কাসেম                        এস আই, বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

16.  জনাব নাঃ সুবেদার আলী আরশাদ               কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

17.   জনাব মোঃ হামিদুল হক                         চেয়ারম্যান, চম্পকনগর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

18.   জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                    চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

19.   জনাব মোঃ শফিকুর রহমান                     উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

20.   জনাব মোঃ তারা মিয়া                            কমান্ডার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

21.   জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন           উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

22.  জনাব কাজী হারিসুর রহমান                     সভাপতি, উপজেলা কমিউনিটিং পুলিশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

23.  জনাব মোঃ হারম্নন অর রশিদ                   উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

24.   জনাব  ফরিদা আক্তার                            উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

25.  জনাব মোঃ আল মামুন                           চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

26.  জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                    চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির ফেব্রম্নয়ারী/২০১৫ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৮/০২/২০১৫ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য জানুয়ারী /২০১৫ খ্রিঃ ও বিগত

    ডিসেম্বর/২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জানুয়ারী/১৫ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়।

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ইউপি চেয়ারম্যানগণকে ধন্যবাদ জানানো হয়। চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য জানুয়ারী ২০১৫ মাসে ৬২২টি অভিযানের মাধ্যমে ১০,৩৭,৪০০/- টাকার পণ্য আটক করেন। বিগত ডিসেম্বর ২০১৪ মাসে ৬১৬ টি অভিযানের মাধ্যমে ৮,৫৫,১১০/- টাকার পণ্য আটক করা হয়েছে। 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, এ মাসে চোরাচালান অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন প্রকার ভারতীয় হুইস্কি, জটগাজা, মসলা, ফেন্সিডিল এবং বাংলাদেশী হাঁস ও মাছসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য উদ্ধার করা হয় মর্মে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।   

 

 

জনাব আবুল কাসেম, এস আই, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবিসহ সকলসত্মরের জনসাধারণগণ সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য অনুরোধ জানান। জানুয়ারী/২০১৫ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় হুইস্কি-৪৭ বোতল, ইয়াবা-৪৫ পিচ, রিকোডেক্স সিরাপ-০৮ বোতল, গাঁজা-৭২ কেজিসহ মাইক্রো-১টি উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ১৭টি মামলা করা হয় ।

সভাপতি জানান যে, অত্র উপজেলায় চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর ভূমিকা রাখার বিষয়ে আরো দায়িত্বশীল হতে হবে। এলাকার জনগণের সাথে সুসর্ম্পক রেখে কাজ করলে সহজে সহযোগিতা পাওয়া যাবে। সীমামত্মএলাকার দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি অন্যান্য বিষয়ে ও নজর রাখতে হবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

১. চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

২.  চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

৩. সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ নিয়মিত সভায় উপস্থিত থাকার জন্য  সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, মুকুন্দপুর কর্তৃক দাখিলকৃত জানুয়ারী ২০১৫ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 

 

 

 

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (জানুয়ারী/১৫)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

জিডি এন্ট্রির

সংখ্যা

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ১০০বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-১৪০ বোতল

ভারতীয়  গাজা- ১০ কেজি

বাংলাদেশী হাসঁ-১৫ টি

১,৪৬,০০০/-

৩,৬০০/-

১,৪৯,৬০০/-

--

০৯

--

সিংগারবিল

বিভিন্ন প্রকার মসলা-২৭ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮০ বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-৭৮ বোতল

গাজা-১.৮ কেজি

ভারতীয় বিড়ি-১৬৮০ প্যাকেট

২,৫৪,৫০০/-

--

২,৫৪,৫০০/-

--

১৫

--

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৯০বোতল

ভারতীয় জটগাজা-২ কেজি

৯৮,৪০০/-

--

৯৮,৪০০/- 

--

০২

--

লক্ষ্মীপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৪ বোঃ

বিভিন্ন প্রকার মাছ-৬৭ কেজি

১৮,০০০/-

৫,০০০/-

২৩,০০০/-  

--

০২

--

 

বিষ্ণপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৬২ বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-৫০ বোতল

গাজা-২.৮ কেজি

ভারতীয় কীটনাশক-১২০ বোতল

 

৫,১১,৯০০/-

 

--

 

৫,১১,৯০০/-  

 

--

 

০৫

 

--

                  সর্বমোট

১০,২৮,৮০০/-

৮,৬০০/-

১০,৩৭,৪০০/-

--

৩৩

--

 

বিজয়নগর থানার পুলিশ কর্তৃক ডিসেম্বর/১৪ মাসে অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণঃ

ক্রমিক নং

উদ্ধারকৃত মালামালের বিবরণ

মামলার বিবরণ

আসামীর সংখ্যা

ভারতীয় হুইস্কি-৪৭ বোতল, ইয়াবা-৪৫ পিচ,  রিকোডেক্স সিরাপ-০৮ বোতল, গাঁজা-৭২ কেজি ৫০০গ্রাম মাইক্রো-১টি উদ্ধার করা হয়।

মাদকদ্রব্য আইনে-১৭টি

১৭জন

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৫-                                                                   তারিখঃ ১৫/০৩/২০১৫ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

27.  জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                        উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

28.  জনাব মোঃ আবুল কাসেম                        এস আই, বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

29.  জনাব নাঃ সুবেদার আলী আরশাদ               কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

30.  জনাব মোঃ হামিদুল হক                         চেয়ারম্যান, চম্পকনগর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

31.  জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                    চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

32.  জনাব মোঃ শফিকুর রহমান                     উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

33.জনাব মোঃ তারা মিয়া                            কমান্ডার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

34.  জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন           উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

35.  জনাব কাজী হারিসুর রহমান                     সভাপতি, উপজেলা কমিউনিটিং পুলিশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

36.জনাব মোঃ হারম্নন অর রশিদ                   উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

37.  জনাব  ফরিদা আক্তার                            উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

38.  জনাব মোঃ আল মামুন                           চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

39.  জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                    চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির জানুয়ারী/২০১৫ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৮/০১/২০১৫ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য ডিসেম্বর/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

  নভেম্বর /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  ডিসেম্বর/১৫ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়।

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ইউপি চেয়ারম্যানগণকে ধন্যবাদ জানানো হয়। চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য ডিসেম্বর ২০১৪ মাসে ৬১৬টি অভিযানের মাধ্যমে ৮,৫৫,১১০/- টাকার পণ্য আটক করেন। বিগত নভেম্বর ২০১৪ মাসে ৬০০ টি অভিযানের মাধ্যমে ১৪,১৪,০০০/- টাকার পণ্য আটক করা হয়েছে। 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, এ মাসে চোরাচালান অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন প্রকার ভারতীয় হুইস্কি, জটগাজা, মসলা, ফেন্সিডিল এবং বাংলাদেশী মাছসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য উদ্ধার করা হয় মর্মে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,বিজিবির সদস্যরা প্রতিনিয়তে বদলী হওয়ায় কারণে চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে কাজ করতে নানা সমস্যা হয়। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।   

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। ডিসেম্বর/২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় হুইস্কি-৯৯ বোতল, ইয়াবা-৫০ পিচ, ফেন্সিডিল-৩৬১ বোতল, রিকোডেক্স সিরাপ-১১ বোতল, গাঁজা-২৪ কেজি ৭০০গ্রাম ভারতীয় স্কপ ৩৫ বোতল সিএনজি-১টি উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ২৩টি মামলা করা হয় । বিজিবি সর্বদা সহযোগিতা করছে বিভিন্ন বিষয়ে। বর্তমানে দেশের এই পরিস্থিতিতে রেললাইনের পাশে নজরদারি রাখার জন্য অনুরোধ করেন।

ভাইস চেয়ারম্যান, বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর সভায় জানান যে, মির্জাপুর মোড়ে মুদি দোকানের আড়ালে মাদক চলছে। ব্যবসা চোরাচালান ও মাদককের সাথে যারা জড়িত তাদের বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ করেন। উদ্ধারকৃত মালামালের সাথে বহনকারী এবং মালিককে গ্রেফতার করার জন্য বিজিবিকে অনুরোধ করেন।

সভাপতি জানান যে, অত্র উপজেলায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপÿÿর কার্যক্রম নেই বললেই চলে। এলাকার জনগণের সাথে সুসর্ম্পক রেখে কাজ করলে সহজে সহযোগিতা পাওয়া যাবে। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

১. চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

২.  চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

৩. মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর চোরাচালান নিয়ন্ত্রেণ নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করার জন্য কর্তৃপÿকে অনুরোধ জানান।

৪.বিজিবি সদস্যদেরকে নিয়মিত বদলী না করে বিভিন্ন ক্যাম্পে রাখার জন্য অধিনায়ক, ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ান, সরাইল ক্যাম্পকে অনুরোধ জানান।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, মুকুন্দপুর কর্তৃক দাখিলকৃত ডিসেম্বর ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (ডিসেম্বর/১৪)ঃ

 

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

জিডি এন্ট্রির

সংখ্যা

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ১০০বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-১৪০ বোতল

ভারতীয়  গাজা- ১০ কেজি

সিএনজি-১টি

২,৪২,৩০০/-

২৫,৬১০/-

২,৬৭,৯১০/-

--

১৪

--

সিংগারবিল

বিভিন্ন প্রকার মসলা-২৩ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৮০ বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-৫৬ বোতল

গাজা-১.৮ কেজি

ভারতীয় বিড়ি-১৬৮০ প্যাকেট

১,৩৬,০০০/-

১২,৪০০/-

১,৪৮,৪০০/-

--

১০

--

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৯০বোতল

ভারতীয় সাইকেল-১টি

৬১,১০০/-

৯,৫০০/-

৭০,৬০০/- 

--

০৬

--

লক্ষ্মীপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২২ বোঃ

৫১,০০০/-

 

৫১,০০০/-  

--

০২

--

 

বিষ্ণপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৫৪ বোতল বিভিন্ন প্রকার মাছ-৭৮ কেজি

 

৩,১০,০০০/-

 

৭,২০০/-

 

৩,১৭,২০০/-  

 

--

 

০৯

 

--

                  সর্বমোট

৮,০০,৪০০/-

৫৪,৭১০/-

৮,৫৫,১১০/-

--

৪১

--

 

বিজয়নগর থানার পুলিশ কর্তৃক ডিসেম্বর/১৪ মাসে অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণঃ

ক্রমিক নং

উদ্ধারকৃত মালামালের বিবরণ

মামলার বিবরণ

আসামীর সংখ্যা

ভারতীয় হুইস্কি-৯৯ বোতল, ইয়াবা-৫০ পিচ, ফেন্সিডিল-৩৬১ বোতল, রিকোডেক্স সিরাপ-১১ বোতল, গাঁজা-২৪ কেজি ৭০০গ্রাম ভারতীয় স্কপ ৩৫ বোতল সিএনজি-১টি উদ্ধার করা হয়।

মাদকদ্রব্য আইনে-২৩টি

 

৩০জন

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৫-                                                                   তারিখঃ ১৭/০২/২০১৫ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

40.   জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

41.   জনাব মোঃ আবদুর রব                           অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

42.  জনাব বাবুল আক্তার,                              ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

43.  জনাব মোঃ আল মামুন                           চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

44.   জনাব নাঃ সুবেদার আলী আরশাদ   কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

45.  জনাব মোঃ হামিদুল হক             চেয়ারম্যান, চম্পকনগর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

46.  জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                    চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

47.   জনাব মোঃ শফিকুর রহমান                     উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

48.  জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                        চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

49.   জনাব মোঃ তারা মিয়া                            কমান্ডার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

50.  জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন           উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

51.  জনাব  ফরিদা আক্তার                            উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

52.জনাব মোঃ হারম্নন অর রশিদ                   উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির ডিসেম্বর/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ১৮/১২/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ৯.৩০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য নভেম্বর/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

  অক্টোবর/২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  নভেম্বর/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ইউপি চেয়ারম্যানগণকে ধন্যবাদ জানানো হয়। চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য নভেম্বর ২০১৪ মাসে ৬০০টি অভিযানের মাধ্যমে ১৪,১৪,০০০/-টাকার পণ্য আটক করেন। বিগত অক্টোবর ২০১৪ মাসে ৪৯০ টি অভিযানের মাধ্যমে ১৩,২২,০০০/-টাকার পণ্য আটকসহ একটি আসামী বিহীন মামলা করা হয়েছে। 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, এ মাসে চোরাচালান অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন প্রকার ভারতীয় হুইস্কি, গাজা, মসলা, ফেন্সিডিল এবং বাংলাদেশী মাছসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য উদ্ধার করা হয় মর্মে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।   

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। নভেম্বর/ ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় হুইস্কি-১১ বোতল, ইয়াবা-৭০ পিচ, ফেন্সিডিল-১৫ বোতল, রিকোডেক্স সিরাপ-৩০ বোতল, গাঁজা-১৩ কেজি হিরোইন ২৬ গ্রাম ইস্কুপ মাদক জাতীয় সিরাপ ২৭ বোতল ভারতীয় নেশা জাতীয় ইনজেকশন ১০০ পিচ উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ১৯টি মামলা করা হয় ।

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্তে যে কোন সময়ে আমাকে অবহিত করা হলে দ্রম্নত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। প্রত্যেক ইউনিয়নের স্কুলে চোরাচালান সংক্রামত্ম সভা এবং মাদ্রকদ্রব্য ব্যবহারের কুফল ও চোরাচালান সর্ম্পকে সচেতনামূলক সভা করা হবে। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

১. চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

২.  চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, মুকুন্দপুর কতৃর্ক দাখিলকৃত নভেম্বর ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (নভেম্বর/১৪)ঃ

 

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

জিডি এন্ট্রির

সংখ্যা

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ১০০বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-১৪০ বোতল

ভারতীয়  গাজা- ১০ কেজি

সিএনজি-১টি

৫,৯৬,২০০/-

 

৫,৯৬,২০০/-

--

--

--

সিংগারবিল

বিভিন্ন প্রকার মসলা-২৩ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৮০ বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-৫৬ বোতল

গাজা-১.৮ কেজি

ভারতীয় বিড়ি-১৬৮০ প্যাকেট

২,১৯,০০০/-

৬,৯০০/-

২,২৫,৯০০/-

--

--

--

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৯০বোতল

ভারতীয় সাইকেল-১টি

১,৫৩,৫০০/-

--

১,৫৩,৫০০/- 

--

--

--

লক্ষ্মীপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২২ বোঃ

৩৩,০০০/-

 

৩৩,০০০/-  

--

--

--

 

বিষ্ণপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৫৪ বোতল বিভিন্ন প্রকার মাছ-৭৮ কেজি

 

৩,৮২,০০০/-

 

২৩,৪০০/-

 

৪,০৫,৪০০/-  

 

--

 

--

 

--

                  সর্বমোট

১৩,৮৩,৭০০/-

৩০,৩০০/-

১৪,১৪,০০০/-

--

--

--

 

বিজয়নগর থানার পুলিশ কর্তৃক নভেম্বর/১৪ মাসে অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণঃ

ক্রমিক নং

উদ্ধারকৃত মালামালের বিবরণ

মামলার বিবরণ

আসামীর সংখ্যা

ভারতীয় গাজা-১৩ কেজি, ভারতীয় ফেন্সিডিল-১৫ বোতল

রিকোডেক্স সিরাপ-৩০ বোতল, ইয়াবা-৭০ পিচ, ভারতীয় হুইস্কি-১১বোতল

হিরোইন -২৬ গ্রাম, ইস্কুপ মাদক জাতীয় সিরাপ-২৭ বোতল, ভারতীয় ইনজেকশন-১০০ পিচ

মাদকদ্রব্য আইনে-১৮টি

চোরাচালান আইনে-১টি

 

 

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-                                                                   তারিখঃ ৩০/১২/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

53.জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

54.  জনাব মোঃ আবদুর রব                           অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

55.জনাব মোঃ আল মামুন                           চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

56.জনাব নাঃ সুবেদার প্রভানন্দ রিহিলকোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

57.  জনাব মোঃ হামিদুল হক             চেয়ারম্যান, চম্পকনগর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

58.জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                    চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

59.  জনাব  ফরিদা আক্তার                            উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

60.  জনাব সাজেদা বেগম                              উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

61.  জনাব মোঃ হারম্নন অর রশিদ                   উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

62.জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন           উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

63.জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                        চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির নভেম্বর/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৭/১১/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.৩০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য অক্টোবর/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

  সেপ্টেম্বর /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  অক্টোবর/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ইউপি চেয়ারম্যানগণকে ধন্যবাদ জানানো হয়। চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য অক্টোবর ২০১৪ মাসে ৪৯০টি অভিযানের মাধ্যমে ১৩,২২,০০০/-টাকার পণ্য আটকসহ একটি আসামী বিহীন মামলা করা হয়েছে। বিগত সেপ্টেম্বর ২০১৪ মাসে ৫১০ট অভিযানের মাধ্যমে ১৯,৪১,২২০/-টাকার পণ্য আটক/ উদ্ধারসহ জিডি এন্ট্রি ৩৫ টি এবং ১টি থানায় মামলা করাসহ  ১জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, এ মাসে চোরাচালান অভিযান পরিচালনা করে ভারতীয় হুইস্কি, বিয়ার, সিরাপ, জটগাজা, জিরা, ফেন্সিডিল এবং রিকোডেক্স সিরাপসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য উদ্ধার করা হয় মর্মে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক।  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন। 

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। অক্টোবর/ ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় হুইস্কি-৩৪ বোতল, ইয়াবা-৩৯পিচ, ফেন্সিডিল-৪৪ বোতল, রিকোডেক্স সিরাপ-১০ বোতল, গাঁজা-৩৬ কেজি চোলাই মদ-০৫ লিটার উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ১৯টি মামলা করা হয় ।

ভাইস চেয়ারম্যান, বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর সভায় জানান যে, চোরাচালান ও মাদককের সাথে যারা জড়িত তাদের বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ করেন। উদ্ধারকৃত মালামালের সাথে বহনকারী এবং মালিককে গ্রেফতার করার জন্য বিজিবিকে অনুরোধ করেন।

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান ও মাদকের সাথে যারা জড়িত তাদেরকে সামাজিকভাবে ঘৃণা করতে হবে এবং সচেতনামূলক র‌্যালী ও কর্মশালা করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরতাসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য নির্ধারণ করার বিষয়ে বাসত্মবতার নিরিহে মূল্য নির্ধারণ করার জন্য বিজিবিকে অনুরোধ জানান। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়।

১. চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

২.  চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

৩. চোরাচালান ও মাদককের মূল্য নির্ধারণের বিষয়ে সঠিকভাবে তদমত্মক্রমে করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, মুকুন্দপুর কতৃর্ক দাখিলকৃত অক্টোবর ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (অক্টোবর/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

জিডি এন্ট্রির

সংখ্যা

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ১০০বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-১৪০ বোতল

ভারতীয়  গাজা- ১০ কেজি

সিএনজি-১টি

৫,৯১,০০০/-

 

৫,৯১,০০০/-

--

--

--

সিংগারবিল

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৬৭ বোতল

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-৫৬ বোতল

গাজা-১.৮ কেজি

মসলা-২৩ কেজি

ভারতীয় বিড়ি-১৬৮০ প্যাকেট

১,৭১,২০০/-

৬,৯০০/-

১,৭৮,১০০/-

--

--

--

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৯০বোতল

ভারতীয় সাইকেল-১টি

১,৪১,৫০০/-

--

১,৪১,৫০০/- 

--

--

০১টি

লক্ষ্মীপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১০ বোঃ

ভারতীয়  গাজা- ২ কেজি

১৫,০০০/-

 

১৫,০০০/-  

--

--

--

 

বিষ্ণপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৩৩বোতল ভারতীয় বিয়ার-২৪ বোতল

গাজা-৫ কেজি,

টেংরা মাছ-৭৮ কেজি

 

৩,৭৩,০০০/-

 

২৩,৪০০/-

 

৩,৯৬,৪০০/-  

 

--

 

--

 

--

                  সর্বমোট

১২,৯১,৭০০/-

৩০,৩০০/-

১৩,২২,০০০/-

--

--

০১টি

বিজয়নগর থানার পুলিশ কর্তৃক অক্টোবর/১৪ মাসে অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণঃ

ক্রমিক নং

উদ্ধারকৃত মালামালের বিবরণ

মামলার বিবরণ

আসামীর সংখ্যা

ভারতীয় গাজা-৩৬ কেজি, ভারতীয় ফেন্সিডিল-৪৪ বোতল

রিকোডেক্স সিরাপ-১০ বোতল, ইয়াবা-৩৯ পিচ, ভারতীয় হুইস্কি-৩৪বোতল

চোলাই মদ-৫ লিটার

মাদকদ্রব্য আইনে-১৮টি

চোরাচালান আইনে-১টি

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-                                                                   তারিখঃ ১০/১২/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

64.  জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

65.জনাব মোঃ আবদুর রব                           অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

66.জনাব বাবুল আক্তার                                ভাইস চেয়ারম্যান, বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

67.  জনাব মোঃ আল মামুন                           চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

68.জনাব মোঃ তারা মিয়া                            উপজেলা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

69.  জনাব নাঃ সুবেদার হুমায়ুন কবির   কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

70.  জনাব মোঃ নজরম্নল ইসলাম                    চেয়ারম্যান, বুধমত্মী ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

71.   জনাব মোঃ হামিদুল হক             চেয়ারম্যান, চম্পকনগর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

72.  জনাব এ,এম, শামীউল হক চৌধুরী  চেয়ারম্যান, চান্দুরা ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

73.জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                    চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

74.   জনাব  ফরিদা আক্তার                            উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

75.  জনাব সাজেদা বেগম                              উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

76.  জনাব মোঃ হারম্নন অর রশিদ                   উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

77.  জনাব মোঃ কামাল হক                           স্যানেটারী ইন্সপেক্টর, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস, বিজয়নগর।

78.  জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন           উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

79.  জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                        চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

80.  জনাব মোঃ আঃ হাফেজ ভূইয়া,                 চেয়ারম্যান, চর ইসলামপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির অক্টোবর/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ৩০/১০/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.৩০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য অক্টোবর/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

  আগস্ট /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  সেপ্টেম্বর/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ইউপি চেয়ারম্যানগণকে ধন্যবাদ জানানো হয়। চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য সেপ্টেম্বর ২০১৪ মাসে ৫১০টি অভিযানের মাধ্যমে ১৯,৪১,২২০/-টাকার পণ্য আটক/ উদ্ধারসহ জিডি এন্ট্রি ৩৫ টি এবং ১টি থানায় মামলা করাসহ  ১জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিগত আগস্ট ২০১৪ মাসে ৫৩৮টি অভিযানের মাধ্যমে ১২,৬০,৮১০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ জিডি এন্ট্রি ৩১ টি করা হয়েছে।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, চোরাচালান কমে আসছে বলে সভায় জানান। এ মাসে চোরাচালান অভিযান পরিচালনা করে ৩৫টি জিডি এন্ট্রি করে ভারতীয় হুইস্কি, সিরাপ, জটগাজা, জিরা, ফেন্সিডিল এবং রিকোডেক্স সিরাপসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য উদ্ধার করা হয় মর্মে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন। 

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। সেপ্টেম্বর/ ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় হুইস্কি-৬৬ বোতল, ইয়াবা-২০পিচ, ফেন্সিডিল-৫০ বোতল, রিকোডেক্স সিরাপ-৪০ বোতল, গাঁজা-১১৬ কেজি উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ২০টি মামলা করা হয় ।

ভাইস চেয়ারম্যান, বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর সভায় জানান যে, চোরাচালান ও মাদক যেন বৃদ্ধি না পায় সে বিষয়ে তৎপর থেকে সকলে স্ব-স্ব দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে হবে। মাদকের সাথে যারা জড়িত তাদের বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ করেন।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালানের সাথে যারা জড়িত তাদেরকে সামাজিকভাবে ঘৃণা করতে হবে এবং সচেতনামূলক লিফলেট বিতরণ করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরতাসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। আসামীসহ মালামাল আটক কারার জন্য  বিওপি প্রধানকে অনুরোধ জানান হয়। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়।

১. চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

২.  চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, মুকুন্দপুর কতৃর্ক দাখিলকৃত সেপ্টেম্বর ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (সেপ্টেম্বর/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

জিডি এন্ট্রির

সংখ্যা

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ৬০ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৫কেজি

বাংলাদেশী মাছ-৩৯লিটার

ভারতীয় ফেন্সিডিল-১৯১ বোতল

মদ-১৬ কেজি

ভারতীয় বাজাজ সি এনজি-১টি

১০,৫৯,৮০০/-

১০,৯২০/-

১০,৭০,৭২০/- 

 

১০টি

--

সিংগারবিল

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৬৮ বোঃ

ভারতীয়  ফেন্সিডিল-৩০ বোতল

২,৬৪,০০০/-

--

২,৬৪,০০০/-

--

০৯ টি

--

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১১৩ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-২ কেজি

ভারতীয় ফেন সিডিল-২৫ বোতল

১,৮৬,৫০০/-

--

১,৮৬,৫০০/- 

--

০৭টি

--

লক্ষ্মীপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৩০ বোঃ

ভারতীয়  গাজা- ২ কেজি

৫৩,৮০০/-

--

৫৩,৮০০/- 

১জন

০২টি

০১টি

 

বিষ্ণপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৫১ বোঃ ভারতীয় ফেন্সিডিল-১১৮ বোতল

গাজা-১২ কেজি,

মাছ-১৪৮ কেজি

 

৩,১৫,৭০০/-

 

৫০,৫০০/-

 

৩,৬৬,২০০/-  

 

--

 

০৭টি

--

                  সর্বমোট

১৮,৭৯,৮০০/-

৬১,৪২০/-

১৯,৪১,২২০/-

১জন

৩৫টি

০১টি

 

 

 

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-                                                                   তারিখঃ ১৩/১১/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

81.  জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

82.জনাব মোঃ আব্দুর রব                            অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

83.জনাব বাবুল আক্তার                                ভাইস চেয়ারম্যান, বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

84.  জনাব মোঃ আল মামুন                           চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

85.জনাব মোঃ তারা মিয়া                            উপজেলা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

86.জনাব নাঃ সুবেদার হুমায়ুন কবির   কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

87.  জনাব মোঃ নজরম্নল ইসলাম                    চেয়ারম্যান, বুধমত্মী ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

88.জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম                       চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

89.  জনাব এ,এম, শামীউল হক চৌধুরী  চেয়ারম্যান, চান্দুরা ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

90.  জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                    চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

91.   জনাব  ফরিদা আক্তার                            উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

92.  জনাব সাজেদা বেগম                              উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

93.জনাব মোঃ হারম্নন অর রশিদ                   উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

94.   জনাব মোঃ কামালা হক              স্যানেটারী ইন্সপেক্টর, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস, বিজয়নগর।

95.  জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন           উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

96.  জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                        চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির সেপ্টেম্বর/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ৩০/০৯/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.৩০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য আগস্ট/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

   জুলাই /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  আগস্ট/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ধন্যবাদ জানানো হয়। চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য আগস্ট ২০১৪ মাসে ৫৩৮টি অভিযানের মাধ্যমে ১২,৬০,৮১০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ জিডি এন্ট্রি ৩১ টি করা হয়েছে । বিগত জুলাই ২০১৪ মাসে ৫৩৭টি অভিযানের মাধ্যমে ১২,৯৫,৫৬০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ জিডি এন্ট্রি ৩২ টি করা হয় এবং ১টি মামলা রম্নজু করাসহ ১জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

সভাপতি বিজিবি কর্তৃক চোরাচালান অভিযানের সংখ্যা কম ও মামলা না হওয়ায় অসমেত্মাষ প্রকাশ করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, চোরাচালান কমে আসছে বলে সভায় জানান। এ মাসে চোরাচালান অভিযান পরিচালনা করে ৩১টি জিডি এন্ট্রি করে ভারতীয় হুইস্কি, সিরাপ, জটগাজা, জিরা, ফেন্সিডিল এবং রিকোডেক্স সিরাপসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য উদ্ধার করা হয় মর্মে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। আগস্ট/ ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় নেশা জাতীয় ইনজেকশন-১৬০পিচ, ফেন্সিডিল-১৪০ বোতল, স্কফ সিরাপ-৩০ বোতল, গাঁজা-২২কেজি উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ১৭টি মামলা করা হয় ।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরতাসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। আসামীসহ মালামাল আটক কারার জন্য  বিওপি প্রধানকে অনুরোধ জানান হয়। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়।

১. চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

২. চোরাচালান অভিযানে মালামাল উদ্ধারের সাথে আসামী ধরতে হবে এবং চোরাচালানের সাথে জড়িত ব্যক্তিদেরকে আইনের আওতায় এনে গ্রেফতারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

৩. চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, মুকুন্দপুর কতৃর্ক দাখিলকৃত আগস্ট ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (আগস্ট/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

জিডি এন্ট্রির

সংখ্যা

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ১২৩বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-২কেজি

বাংলাদেশী ডিজেল ৪০০লিটার

ভারতীয় গুড়া দুধ-২৫ কেজি

২,৭৯,৮০০/-

--

২,৭৯,৮০০/- 

 

০৮টি

--

সিংগারবিল

ভারতীয় সিরাপ-২০০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৭০বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৩ কেজি

ভারতীয় মাইকেল-১টি

ভারতীয় ডিম ৫ কেচ

২,৮৭,৫০০/-

--

২,৮৭,৫০০/-

--

০৭ টি

--

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১২৮ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-২.৫ কেজি

ভারতীয় ফেন সিডিল-২১ বোতল

৩,২১,৫১০/-

--

৩,২১,৫১০/- 

--

০৯টি

--

লক্ষ্মীপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৯ বোঃ

ভারতীয়  সিরাপ-১৮ বোতল

৩৯,০০০/-

--

৩৯,০০০/- 

--

০২

--

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৬৪ বোঃ ভারতীয়  সিরাপ-৫৫ বোতল

 

৩,৩৩,০০০/-

 

--

 

৩,৩৩,০০০/-  

 

--

 

০৫টি

--

                  সর্বমোট

১২,৬০,৮১০/-

--

১২,৬০,৮১০/-

--

৩১টি

--

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-৭৪২                                                 তারিখঃ ০৮/১০/২০১৪ খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

97.  জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

98.  জনাব মোঃ আব্দুর রব                            অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

99.  জনাব বাবুল আক্তার                                ভাইস চেয়ারম্যান, বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

100.           জনাব মোঃ আল মামুন                     চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

101.           জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                  চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

102.          জনাব নাঃ সুবেদার মোজাম্মেল হক       কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

103.          জনাব মোঃ নজরম্নল ইসলাম              চেয়ারম্যান, বুধমত্মী ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

104.           জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম                 চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

105.          জনাব এ,এম, শামীউল হক চৌধুরী        চেয়ারম্যান, চান্দুরা ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

106.          জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম              চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

107.           জনাব  ফরিদা আক্তার                                  উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

108.          জনাব সাজেদা বেগম                                    উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

109.           জনাব মোঃ হারম্নন অর রশিদ             উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

110.           জনাব ডাঃ কাজী মাজহারম্নল ইসলাম    সহকারী সার্জন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস, বিজয়নগর।

111.            জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন     উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির আগস্ট/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৫/০৮/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ৯.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য জুলাই/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

 জুন /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জুলাই/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ধন্যবাদ জানানো হয়।চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য জুলাই ২০১৪ মাসে ৫৩৭টি অভিযানের মাধ্যমে ১২,৯৫,৫৬০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৩৩টি মামলায় রম্নজু করা হয়েছে এবং ১জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সভাপতি বিজিবি কর্তৃক চোরাচালান অভিযানের সংখ্যা ও মামলার সংখ্যা কম হওয়ায় অসমেত্মাষ প্রকাশ করা হয়।

 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, চোরাচালান কমে আসছে বলে সভায় জানান। এ মাসে আসামীসহ মামলা হয়েছে ৩৩টি। ফেন্সিডিল এবং রিকোডেক্স সিরাপসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য ভারত থেকে  পাচার হয়ে আসছে বলে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে নৌকা দিয়ে অভিযান পরিচালনা করার জন্য অনুরোধ করেন।

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। জুলাই/ ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় নেশা জাতীয় ইনজেকশন, ফেন্সিডিল, বোতল, স্কফ সিরাপ, ভারতীয় মদসহ গাঁজা উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ২২টি মামলা করা হয় এবং ২১ জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।  বর্ষা মৌসুম শুরম্ন হওয়ায় নৌপথে যেন চোরাচালান বৃদ্ধি না পায় সে বিষয়ে সকলে তৎপর থাকতে হবে। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতেহবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। আসামীসহ মালামাল আটক কারার জন্য  বিওপি প্রধানকে অনুরোধ জানান হয়। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়।

১.চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরতাসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.প্রকৃত চোরাচালানের  সাথে জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে গ্রেফতারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

৩.   চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, মুকুন্দপুর কতৃর্ক দাখিলকৃত জুলাই ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (জুলাই/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ১২৩বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-২কেজি

বাংলাদেশী ডিজেল ৪০০লিটার

ভারতীয় গুড়া দুধ-২৫ কেজি

৩,৩২,৭০০/-

 

৩,৩২,৭০০/-

 

০৯টি

সিংগারবিল

ভারতীয় সিরাপ-২০০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৭০বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৩ কেজি

ভারতীয় মাইকেল-১টি

ভারতীয় ডিম ৫ কেচ

২,৯৫,৬৫০/-

--

২,৯৫,৬৫০ /-

--

০৮ টি

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১২৮ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-২.৫ কেজি

ভারতীয় ফেন সিডিল-২১ বোতল

৩,৭১,৮১০/-

 

৩,৭১,৮১০/-

০১

১১টি

লক্ষ্মীপুর

 বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৫ বোঃ

ভারতীয়  সিরাপ-১০ বোতল

১৮,০০০/-

--

১৮,০০০/-

--

০১

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৬৪ বোঃ ভারতীয়  সিরাপ-৫৫ বোতল

 

 

২,৭৭,৪০০/-

 

 

 

২,৭৭,৪০০ /-

 

--

 

০৪টি

                  সর্বমোট

১২,৯৫,৫৬০/-

 

১২,৯৫,৫৬০/-

--

৩৩টি

 

 

 

 

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-৬২৪                                                             তারিখঃ ২৯/০৮/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

112.           জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                  উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

113.          জনাব মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন                          অফিসার ইনর্চাজ (তদমত্ম),বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

114.            জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

115.           জনাব সুবেদার মোঃ আমিনুর রহমান                 কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

116.           জনাব মোঃ আল মামুন                                 চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

117.           জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                              চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

118.           জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

119.           জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

120.          জনাব মাজেদা বেগম                                                উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

121.           জনাব মোঃ হারম্নন অর রশিদ                         উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

122.          জনাব ডাঃ মোহাম্মদ মোসত্মাফিজুর রহমান                      সহকারী সার্জন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির জুলাই/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ১৭/০৭/২০১৪ খ্রিঃ সময় বেলা ০২.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য জুন/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

 মে /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জুন/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ধন্যবাদ জানানো হয়।চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য জুন ২০১৪ মাসে ৫৯৪টি অভিযানের মাধ্যমে ৭,৮৩,১০০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ২৭টি মামলায় রম্নজু করা হয়েছে

সভাপতি বিজিবি কর্তৃক চোরাচালান অভিযানের সংখ্যা ও মামলার সংখ্যা কম হওয়ায় অসমেত্মাষ প্রকাশ করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকায় বিজিবি তৎপর রয়েছে।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে সকল ইউপি সদস্য সর্বদা তৎপর রয়েছে।

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,  পাহাড়পুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায়  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশিস্নষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

 

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। জুন/ ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ভারতীয় নেশা জাতীয় ইনজেকশন-১২পিচ, ফেন্সিডিল-৯৭ বোতল, স্কফ সিরাপ-৫০ বোতল, ইয়াবা ট্যাবলেট ৪৬ পিচ ভারতীয় মদ-১২ বোতল,চোলাইমদ-৩০লিটারসহ ২৯কেজি ৫০০গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রামত্ম ২৮টি মামলা করা হয়।

 

সভাপতি জানান যে, বর্ষা মৌসুম শুরম্ন হওয়ায় নৌপথে যেন চোরাচালান বৃদ্ধি না পায় সে বিষয়ে সকলে তৎপর থাকতে হবে। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। আসামীসহ মালামাল আটক কারার জন্য  বিওপি প্রধানকে অনুরোধ জানান হয়। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়।

১.সীমামত্ম এলাকা দিয়ে যাতে চোরাই মালামাল বাংলাদেশের অভ্যমত্মরে প্রবেশ করতে না পারে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে এবং চোরাচালান রোধে টহল কার্যক্রম  আরো বৃদ্ধি ও আসামী গ্রেফতার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত জুন ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (জুন/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ১২৩বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-২ কেজি

বাংলাদেশী ডিজেল ৪০০লিটার

১,৭৩,৫০০/-

২৪,৪০০/-

২,১৫,৯০০/-

 

০৯টি

সিংগারবিল

ভারতীয় সিরাপ-২০০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৭০বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৩ কেজি

ভারতীয় মাইকেল-১টি

ভারতীয় ডিম ৫ কেচ

১,৮৮,৬০০/-

--

১,৮৮,৬০০/-

--

০৮ টি

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৫৬ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-২ কেজি

৯১,০০০/-

 

৯১,০০০/-

--

০৫টি

লক্ষ্মীপুর

--

--

--

--

--

--

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৬৪ বোঃ ভারতীয়  সিরাপ-৪৯ বোতল

 

 

২,৮৭,৬০০/-

 

 

 

২,৮৭,৬০০/-

 

--

 

০৬টি

                  সর্বমোট

৭,৫৮,৭০০/-

 ২৪,৪০০/-

৭,৮৩,১০০/-

--

২৮টি

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪- ৫৩৫                                                            তারিখঃ ২১/০৭/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি, ও, পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

123.         জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                  উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

124.           জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

125.          জনাব মোঃ আল মামুন                                 চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

126.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                              চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

127.          জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

128.          জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

129.          জনাব মোঃ রম্নহুল আমীন                              কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

130.          জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

131.          জনাব ডাঃ মোহাম্মদ মোসত্মাফিজুর রহমান                      সহকারী সার্জন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস

132.         জনাব মাজেদা বেগম                                                উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

133.          জনাব মোঃ আব্দুল মালেক                               আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

134.          জনাব মোঃ আব্দূল আলিম (রানা)                                 উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত), বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

135.         জনাব মোঃ মাহবুব আলম                              সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির জুন/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২২/০৬/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য মে/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

 এপ্রিল /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  মে/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ধন্যবাদ জানানো হয়।চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য মে ২০১৪ মাসে ৬১০টি অভিযানের মাধ্যমে ১০,০৬,৪২৮/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৩২টি মামলায় রম্নজু করা হয়েছে এবং ০১জন আসামীকে আটক করা হয়েছে।

সভাপতি বিজিবি কর্তৃক চোরাচালান অভিযানের সংখ্যা ও মামলার সংখ্যা কম হওয়ায় অসমেত্মাষ প্রকাশ করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,  পাহাড়পুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায়  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশিস্নষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমামত্ম এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

 

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে সকল ইউপি সদস্য সর্বদা তৎপর রয়েছে।

 

 

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ করার লÿÿ্য জোরালো প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। সীমামত্ম এলাকার নিয়মিত অভিযান অব্যাহত আছে। রমজান মাস উপলÿÿ চোরাচালান যেন বৃদ্ধি না পায় সে বিষয়ে সকলে নজর রাখতে হবে।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্তে যে কোন সময়ে আমাকে অবহিত করা হলে দ্রম্নত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আমরা অপরাধকে ঘৃণা করব অপরাধীকে নয়। চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

১.সীমামত্ম এলাকা দিয়ে যাতে চোরাই মালামাল বাংলাদেশের অভ্যমত্মরে প্রবেশ করতে না পারে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে এবং চোরাচালান রোধে টহল কার্যক্রম  আরো বৃদ্ধি ও আসামী গ্রেফতার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত মে ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (জুন/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৪২ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-১৮.৩ কেজি

ভারতীয় কপ সিরাপ-৪০ বোতল

বাংলাদেশী ডিজেল ৪০০লিটার

৩,০৫,০৫০/-

৩৩,২০০/-

৩,৩৮,২৫০/-

 

০৯টি

সিংগারবিল

ভারতীয় সিরাপ-৭৩ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৮৫ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-১০ কেজি

ভারতীয় লিচু-৪০০ কেজি

১,৯২,৩০০/-

--

১,৯২,৩০০/-

--

০৮ টি

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৩০ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৫ কেজি

ভারতীয় সিরাপ-০৪ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল-২০ বোঃ

ভারতীয় চোলাই মদ ৫৬.৫ লিটার

৯০,৯৭৮/-

 

৯০,৯৭৮/-

০১

০৭টি

লক্ষ্মীপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৭ বোঃ

ভারতীয় চোলাই মদ ৬ লিটার

৪২,৯০০/-

--

৪২,৯০০/-

--

০২টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২২৮ বোঃ

 

৩,৪২,০০০/-

 

 

 

৩,৪২,০০০/-

 

--

 

০৬টি

                  সর্বমোট

৯,৭৩,২২৮/-

৩৩,২০০

১০,০৬,৪২৮/-

০১

৩২টি

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-৪৭০                                                  তারিখঃ ২৪/০৬/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

136.         জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                  উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

137.          জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

138.         জনাব মোঃ আল মামুন                                 চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

139.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                              চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

140.           জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

141.            জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

142.           জনাব মোঃ রম্নহুল আমীন                              কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

143.          জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

144.            জনাব ডাঃ মোহাম্মদ মোসত্মাফিজুর রহমান                      সহকারী সার্জন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

145.           জনাব মোঃ আব্দুল মালেক                               আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

146.           জনাব মোঃ আব্দূল আলিম (রানা)                                 উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত), বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

147.           জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

148.           জনাব মোঃ মাহবুব আলম                              সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির জুন/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২২/০৬/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য মে/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

 এপ্রিল /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  মে/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ধন্যবাদ জানানো হয়।চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য মে ২০১৪ মাসে ৬১০টি অভিযানের মাধ্যমে ১০,০৬,৪২৮/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৩২টি মামলায় রম্নজু করা হয়েছে এবং ০১জন আসামীকে আটক করা হয়েছে।

সভাপতি বিজিবি কর্তৃক চোরাচালান অভিযানের সংখ্যা ও মামলার সংখ্যা কম হওয়ায় অসমেত্মাষ প্রকাশ করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,  পাহাড়পুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায়  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশিস্নষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমামত্ম এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

 

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে সকল ইউপি সদস্য সর্বদা তৎপর রয়েছে।

 

 

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ করার লÿÿ্য জোরালো প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। সীমামত্ম এলাকার নিয়মিত অভিযান অব্যাহত আছে। রমজান মাস উপলÿÿ চোরাচালান যেন বৃদ্ধি না পায় সে বিষয়ে সকলে নজর রাখতে হবে।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্তে যে কোন সময়ে আমাকে অবহিত করা হলে দ্রম্নত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আমরা অপরাধকে ঘৃণা করব অপরাধীকে নয়। চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

১.সীমামত্ম এলাকা দিয়ে যাতে চোরাই মালামাল বাংলাদেশের অভ্যমত্মরে প্রবেশ করতে না পারে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে এবং চোরাচালান রোধে টহল কার্যক্রম  আরো বৃদ্ধি ও আসামী গ্রেফতার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত মে ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (মে/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৪২ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-১৮.৩ কেজি

ভারতীয় কপ সিরাপ-৪০ বোতল

বাংলাদেশী ডিজেল ৪০০লিটার

৩,০৫,০৫০/-

৩৩,২০০/-

৩,৩৮,২৫০/-

 

০৯টি

সিংগারবিল

ভারতীয় সিরাপ-৭৩ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৮৫ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-১০ কেজি

ভারতীয় লিচু-৪০০ কেজি

১,৯২,৩০০/-

--

১,৯২,৩০০/-

--

০৮ টি

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৩০ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৫ কেজি

ভারতীয় সিরাপ-০৪ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল-২০ বোঃ

ভারতীয় চোলাই মদ ৫৬.৫ লিটার

৯০,৯৭৮/-

 

৯০,৯৭৮/-

০১

০৭টি

লক্ষ্মীপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৭ বোঃ

ভারতীয় চোলাই মদ ৬ লিটার

৪২,৯০০/-

--

৪২,৯০০/-

--

০২টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২২৮ বোঃ

 

৩,৪২,০০০/-

 

 

 

৩,৪২,০০০/-

 

--

 

০৬টি

                  সর্বমোট

৯,৭৩,২২৮/-

৩৩,২০০

১০,০৬,৪২৮/-

০১

৩২টি

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-৪৭০                                                  তারিখঃ ২৪/০৬/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. উপ-পরিচালক, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. ভাইস চেয়ারম্যান/ মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

149.           জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                  উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

150.          জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

151.           জনাব মোঃ আল মামুন                                 চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

152.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                              চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

153.         জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

154.           জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

155.          জনাব মোঃ রম্নহুল আমীন                              কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

156.          জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

157.          জনাব ডাঃ মোহাম্মদ মোসত্মাফিজুর রহমান                      সহকারী সার্জন, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

158.           জনাব মোঃ আব্দুল মালেক                               আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

159.          জনাব মোঃ আব্দূল আলিম (রানা)                                 উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত), বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

160.          জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

161.           জনাব মোঃ মাহবুব আলম                              সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির মে/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৯/০৫/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য এপ্রিল/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

মার্চ /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  এপ্রিল/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ধন্যবাদ জানানো হয়।চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য এপ্রিল ২০১৪ মাসে ৬২০টি অভিযানের মাধ্যমে ১১,৫৪,৫০০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ২৬টি মামলায় রম্নজু করা হয়েছে।

সভাপতি বিজিবি কর্তৃক চোরাচালান অভিযানের সংখ্যা ও মামলার সংখ্যা কম হওয়ায় এবং আসামী গ্রেফতার করতে না পারায় অসমেত্মাষ প্রকাশ করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে সকল ইউপি সদস্য সর্বদা তৎপর রয়েছে। কাঠালের মৌসুম হওয়ায় কাঠাল বাগানে রাত্রের বেলা পাহারাদার থাকে তাদেরকে যেন হয়রানি না করা হয় সে বিষয়ে অনুরোধ জানান।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমামত্ম এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,  উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশিস্নষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

 

 

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ করা লÿÿ্য জোরালো প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। সীমামত্ম এলাকার অভিযান কালে ১৩ কেজি গাঁজা, ৬ বোতল বিয়ার, ০৫ বোতল হুইস্কি, ১৫ বোতল সিরাপ উদ্ধার করা হয়। মাদকদ্রব্য ও চোরাচালান মামলা হয়েছে ০৫টি। বিজিবি সীমামত্ম এলাকার দায়িত্বে থাকলেও চোরাচালান মালামালের সাথে আসামী ধরতে পারছেনা। যারা মাদক ব্যবসা করে তাদের বিষয়ে আরো তৎপর হতে হবে।

 

সভাপতি জানান যে, প্রত্যেকে নিজ নিজ দায়িত্ব নৈতিকতার সাথে পালন করলে চোরাচালান প্রতিরোধ করা সম্ভব। চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

১.সীমামত্ম এলাকা দিয়ে যাতে চোরাই মালামাল বাংলাদেশের অভ্যমত্মরে প্রবেশ করতে না পারে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে এবং চোরাচালান রোধে টহল কার্যক্রম  আরো বৃদ্ধি ও আসামী গ্রেফতার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

২. চোরাচালান প্রতিরোধে জনসচেতন বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রতি ইউনিয়নের স্কুলে ছাত্র ছাত্রীদের নিয়ে সভা করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

৩. কাঠাল বাগানে যারা পাহারা দেয় তাদের নামের তালিকা বিজিবির নিকট দেওয়ার জন্য সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত এপ্রিল ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (এপ্রিল/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-৯০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৮০ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-১৬কেজি

ভারতীয় কপ সিরাপ-৮৫ বোতল

৬,০৭,৫০০/-

 

৬,০৭,৫০০/-

 

০৭টি

সিংগারবিল

ভারতীয় ফেনসিডিল-২০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৫৭ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-০৩কেজি

১,০১,২০০/-

--

১,০১,২০০/-

--

০৫ টি

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১১১ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৫ কেজি

১,৪৭,৫০০/-

৪,৮০০/-

১,৫২,৩০০/-

০১

০৬টি

লক্ষ্মীপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২২ বোঃ

গরম্ন মোটাতাজাকরণ ট্যাবলেট=৫৯০০টি

৫৩,৫০০/-

--

৫৩,৫০০/-

--

০২টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮১ বোঃ

 

২,৪০,০০০/-

 

 

 

২,৪০,০০০/-

 

--

 

০৬টি

                  সর্বমোট

১২,৬৯,০০০/-

--

১২,৬৯,০০০/-

০১

২৬টি

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-৪৩৩                                                তারিখঃ ১১/০৬/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

162.          জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                  উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

163.         জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

164.           জনাব মোঃ আঃ হাফেজ ভূইয়া                                   চেয়ারম্যান, চর-ইসলামপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

165.          জনাব মোঃ আল মামুন                                 চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

166.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                              চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

167.          জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম                             চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

168.          জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

169.          জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

170.           জনাব মোঃ রম্নহুল আমীন                              কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

171.           জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

172.          জনাব ডাঃ কাজী আবুল হোসেন                                   এসএসিএমকো, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস

173.          জনাব মোঃ আব্দুল মালেক                               আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

174.           জনাব মোঃ আব্দূল আলিম (রানা)                                 উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত), বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

175.          জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

176.          জনাব মোঃ মাহবুব আলম                              সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

177.           জনাব মোঃ দবির আহম্মেদ                            উপজেলা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির এপ্রিল/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৮/০৪/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য মার্চ/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

ফেব্রম্নয়ারী /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  মার্চ/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ধন্যবাদ জানানো হয়।চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য মার্চ ২০১৪ মাসে ৬৩৮টি অভিযানের মাধ্যমে ১২,৬৯,০০০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৩৩টি মামলায় রম্নজু করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধি ও আসামী গ্রেফতার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটামোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

 

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,  উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশিস্নষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমামত্ম এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে সকল ইউপি সদস্য সর্বদা তৎপর রয়েছে।

 

 

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ করা লÿÿ্য জোরালো প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। সীমামত্ম এলাকার অভিযান কালে ৫৬ কেজি গাঁজা, ২০ বোতল ফেন্সিডিল , ১০০ পিছ নেশাজাতীয় ইনজেকশন, ৫০ বোতল হুইস্কি  উদ্ধার করা হয়। মাদকদ্রব্য ও চোরাচালান মামলা হয়েছে ১২টি এবং ১৭ জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিজিবি সীমামত্ম এলাকার দায়িত্বে থাকলেও চোরাচালান মালামালের সাথে আসামী ধরতে পারছেনা। যারা মাদক ব্যবসা করে তাদের বিষয়ে আরো তৎপর হতে হবে।

 

সভাপতি জানান যে, প্রত্যেক ইউনিয়নের স্কুলে চোরাচালান সংক্রামত্ম সভা এবং মাদ্রকদ্রব্য ব্যবহারের কুফল ও চোরাচালান সর্ম্পকে সচেতনামূলক সভা করা হবে। প্রত্যেকে নিজ নিজ দায়িত্ব নৈতিকতার সাথে পালন করলে চোরাচালান প্রতিরোধ করা সম্ভব। চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

১.চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.অভিযান পরিচালনা কালে আসামী ধরার বিষয়ে আরোও তৎপর হতে হবে এবং আসামীর ছবি তুলে রাখতে হবে। 

৩. চোরাচালান প্রতিরোধে জনসচেতন বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রতি ইউনিয়নের স্কুলে ছাত্র ছাত্রীদের নিয়ে সভা করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত মার্চ ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (মার্চ/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-৯০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৫০ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-১৬কেজি

ভারতীয় কপ সিরাপ-৭৫ বোতল

৪,৯৭,০০০/-

 

৪,৯৭,০০০/-

 

১১টি

সিংগারবিল

ভারতীয় ফেনসিডিল-২০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৫৭ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-০৩কেজি

২,৫৪,০০০/-

--

২,৫৪,০০০/-

--

০৭ টি

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১১১ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৫ কেজি

১,৮৪,৫০০/-

--

১,৮৪,৫০০/-

--

৬টি

লক্ষ্মীপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২২ বোঃ

গরম্ন মোটাতাজাকরণ ট্যাবলেট=৫৯০০টি

৬২,৫০০/-

--

৬২,৫০০/-

--

২টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮১ বোঃ

 

২,৭১,৫০০/-

 

 

 

২,৭১,৫০০/-

 

--

 

৭টি

                  সর্বমোট

১২,৬৯,০০০/-

--

১২,৬৯,০০০/-

--

৩৩টি

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-                                                       তারিখঃ ২৮/০৪/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

178.          জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                  উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

179.           জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

180.          জনাব মোঃ আল মামুন                                 চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

181.           জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                              চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

182.          জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম                             চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

183.         জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

184.           জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

185.          জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

186.          জনাব মোঃ মাসুদ মিয়া                                             কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

187.          জনাব মোঃ মাহবুব আলম                              সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

188.           জনাব মোঃ দবির আহম্মেদ                            উপজেলা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

189.          জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

190.           জনাব ডাঃ কাজী আবুল হোসেন                                   এসএসিএমকো, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস

191.           জনাব মোঃ আব্দুল মালেক                               আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

192.          জনাব মোঃ আব্দূল আলিম (রানা                                  উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত), বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির মার্চ/ ২০১৪ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ৩০/০৩/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য ফেব্রম্নয়ারী/২০১৪ খ্রিঃ ও বিগত

জানুয়ারী /২০১৪ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  ফেব্রম্নয়ারী/১৪ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত করায় এবং সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ করায় ধন্যবাদ জানানো হয়।চোরাচালান বিরোধী সভা অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য ফেব্রম্নয়ারী ২০১৪ মাসে ৪৫৮টি অভিযানের মাধ্যমে ৮,৫১,১৫০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ২৩টি মামলায় রম্নজু করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধি ও আসামী গ্রেফতার করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে সকল ইউপি সদস্য সর্বদা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন ।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  সীমামত্মবর্তী এলাকা বিষ্ণপুর ইউনিয়নে বর্তমানে চোরাচালান অনেকটা হ্রাস পেয়েছে।সীমামত্মবর্তী এলাকায় যারা চোরাচালান করে তাদের নাম লিফলেট আকারের প্রকাশ করা এবং বর্তমান প্রজন্মকে এই বিষয়ে সচেতন করলে চোরাচালান প্রতিরোধ করা সহজ হবে।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে,চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমামত্ম এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। সীমামত্ম এলাকায় সাধারণ জনগণ সাবধানতার সাথে গরম্ন পালন করার জন্য অনুরোধ জানান।

 

 

সিংগারবিল বিওপিসভায় জানান চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে।

 

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ করা লÿÿ্য জোরালো প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে। সীমামত্ম এলাকার অভিযান কালে ৬৯ কেজি গাঁজা,২৬৭ বোতল ফেন্সিডিল , ২৬ পিছ ইয়াবা ট্যাবলেট, ০২ বোতল হুইস্কি এবং ৪০ বোতল সিরাপ উদ্ধার করা হয়। মাদকদ্রব্য ও চোরাচালান মামলা হয়েছে ১৪টি এবং ১৬জন আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিজিবি সীমামত্ম এলাকার দায়িত্বে থাকলেও চোরাচালান মালামালের সাথে আসামী ধরতে পারছেনা। যারা মাদক ব্যবসা করে তাদের বিষয়ে আরো তৎপর হতে হবে। সবাই তাদেরকে প্রেসার সৃষ্টি করতে হবে এবং সমাজ থেকে বয়কট করতে হবে।  প্রত্যেকে যার যার অবস্থান থেকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। স্কুলের ছাত্র ছাত্রীদেরকে নিয়ে মাদক বিরোধী র‌্যালী ও জনসচেতনামূলক কাজ করার জন্য অনুরোধ জানান। সীমামত্মবর্তী ইউনিয়নের জনসচেতনামূলক সভায় মাদকদ্রব নিয়ন্ত্রণ অফিসারকে আহবান করার জন্য প্রসত্মাব করেন।

 

সভাপতি জানান যে, প্রত্যেক ইউনিয়নের স্কুলে চোরাচালান সংক্রামত্ম সভা এবং মাদ্রকদ্রব্য ব্যবহারের কুফল ও চোরাচালান সর্ম্পকে সচেতনামূলক সভা করা হবে। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে এবং ছবি তুলে রাখতে হবে। চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

 

১.চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.অভিযান পরিচালনা কালে আসামী ধরার বিষয়ে আরোও তৎপর হতে হবে এবং আসামীর ছবি তুলে রাখতে হবে। 

৩. চোরাচালান প্রতিরোধে জনসচেতন বৃদ্ধির লক্ষ্যেপ্রতি ইউনিয়নের স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে সভা করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

৪) চোরাচালান প্রতিরোধে জনসচেতনা মূলক সভায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তাকে আমন্ত্রণ জানানোর সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত ফেব্রম্নয়ারী ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জব্দকৃত তালিকার বিবরণ (ফেব্রম্নয়ারী/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

আলীনগর ক্যাম্প

 

--

--

--

--

--

সিংগারবিল

ভারতীয় ফেনসিডিল-২০ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৫৭ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-০৩কেজি

২,৫৪,০০০/-

--

২,৫৪,০০০/-

--

০৭টি

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১১৮ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৯.৫ কেজি

ভারতীয় ফেনসিডিল-৫০ বোঃ

ট্যাবলেট=১০০০টি

২,৩৯,২৫০/-

--

২,৩৯,২৫০/-

--

৭টি

লক্ষ্মীপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৪৪ বোঃ

গরম্ন মোটাতাজাকরণ ট্যাবলেট=২৯০০টি

৯২,২০০/-

--

৯২,২০০/-

--

৩টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৭৫ বোঃ

কফ সিরাপ=৮ বোতল

 

২,৬৫,৭০০/-

 

 

 

২,৬৫,৭০০/-

 

--

 

৬টি

                  সর্বমোট

৮,৫১,১৫০/-

--

৮,৫১,১৫০/-

--

২৩টি

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-                                                       তারিখঃ ০৬/০৪/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

 

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

193.          জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                  উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

194.           জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

195.          জনাব মোঃ আল মামুন                                 চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

196.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                              চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

197.           জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম                             চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

198.          জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

199.           জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা প্রশিঃ,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

200.          জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

201.          জনাব মোঃ মাসুদ মিয়া                                             কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

202.         জনাব মোঃ মাহবুব আলম                              সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

203.          জনাব মোঃ দবির আহম্মেদ                            উপজেলা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

204.          জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

205.         জনাব ডাঃ কাজী আবুল হোসেন                                   এসএসিএমকো, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিস

206.          জনাব মোঃ আব্দুল মালেক                               আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

207.          জনাব মোঃ আব্দূল আলিম (রানা                                  উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত), বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির জানুয়ারী/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৯/০১/২০১৪ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য ডিসেম্বর/২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত

  নভেম্বর /২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জানুয়ারী/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপি সভার কার্যবিবরনী না পাওয়ায় সভায় ÿÿাভ প্রকাশ করা হয়। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য জানুয়ারী ২০১৪ মাসে ৬৩৫টি অভিযানের মাধ্যমে ২০,৩৪,৮১০/-টাকার পণ্য আটক/ উদ্ধারসহ ৩৭টি মামলায় সংশিস্নষ্ট ০২ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে সকল ইউপি সদস্য সর্বদা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন ।

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি বর্গের সহযোগিতা নেয়ার জন্য  আহবান জানান ।

 কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে সকলের সহযোগিতা কামনা  করেন। আলীনগর বিওপি সভায় জানান, চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমামত্ম এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

সিংগারবিল বিওপিসভায় জানান চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে।

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান।

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্তে যে কোন সময়ে আমাকে অবহিত করা হলে দ্রম্নত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। প্রত্যেক ইউনিয়নের স্কুলে চোরাচালান সংক্রামত্ম সভা এবং মাদ্রকদ্রব্য ব্যবহারের কুফল ও চোরাচালান সর্ম্পকে সচেতনামূলক সভা করা হবে। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে।

১.চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.অভিযান পরিচালনা কালে আসামী ধরার বিষয়ে আরোও তৎপর হতে হবে।

৩.অবৈধ সীমামত্ম অতিক্রমের  প্রবণতা নিরম্নৎসাহিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের  সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

৪. চোরাচালান প্রতিরোধে জনসচেতন বৃদ্ধির লক্ষ্যে লিফলেট প্রচার করার সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত জানুয়ারী ২০১৪ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জদ্বকৃত তালিকার বিবরণ (জানুয়ারী/১৪)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

 

 

 

 

 

 

 

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় জট গাজা-১৬ কেজি

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৪৫০ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল-২০ বোঃ

হোন্ডা-০১টি

১০,৪০,৫১০/-

--

১০,৪০,৫১০/-

২টি

১১টি

সিংগারবিল

ভারতীয় ফেনসিডিল-৭৩ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৪৭ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৩৭ কেজি

২,৩১,২০০/-

--

২,৩১,২০০/-

--

১১টি

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ১০৮ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-২ কেজি

ভারতীয় ফেনসিডিল-৮০ বোঃ

২,০১,০০০/-

--

২,০১,০০০/-

--

৬টি

লক্ষ্মিপুর

ভারতীয় হুইস্কি= ২২ বোতল

ভারতীয় প্যান্ট/সুটপিস=৩৪৭ মিটার

৪,৪৮,১০০/-

--

৪,৪৮,১০০/-

--

৩টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৬৯ বোঃ

বাংলাদেশী মাছ=১০৫ কেজি

 

১,০৩,৫০০/-

 

১০,৫০০/-

 

১,১৪,০০০/-

 

--

 

৬টি

                  সর্বমোট

২০,২৪,৩১০/-

১০,৫০০/-

২০,৩৪,৮১০/-

২টি

৩৭টি

 

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-১৪২                                                তারিখঃ ১৭/০২/২০১৪ খ্রিঃ

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

208.           জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                              উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

209.           জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

210.           জনাব মোঃ আল মামুন                                     চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

211.           জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

212.           জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম                             চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

213.          জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

214.           জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

215.           জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা প্রশিÿক,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

216.          জনাব সুবেদার প্রভানন্দ রিহিন                                     কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

217.           জনাব সুবেদার মাসুক মিয়া                            আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

218.           জনাব নাঃ সুবেদার জোনাব আলী                                  সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

১। জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                       চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির ডিসেম্বর/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৯/১২/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়ী করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য নভেম্বর/২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত

অক্টোবর /২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  ডিসেম্বর/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। পাহাড়পুর, ইউপি সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য ডিসেম্বর ২০১৩ মাসে ৫০৬টি অভিযানের মাধ্যমে ১০,১১,১৪০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ২৯টি মামলায় সংশিস্নষ্ট ০৩ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি সভায়  জানান যে,চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে সকল ইউপি সদস্য সর্বদা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন ।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,  চোরাচালান প্রতিরোধে  বিজিবি ও পুলিশ বাহিনী আমত্মরিকতার সাথে কাজ করলে চোরাচালান প্রতিরোধ করা সম্ভব।

চেয়ারম্যান চান্দুরা ইউপি সভায় বলেন, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি বর্গের সহযোগিতা নেয়ার জন্য  আহবান জানান ।

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন, সীমামত্ম  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধ করা সহজ হবে।

চেয়ারম্যান পত্তন ইউপি সভায় বলেন, সীমামত্ম  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধ করা সহজ হবে। চোরাচালান প্রতিরোধে সচেতনামূলক লিফলেট প্রচার করার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করেন।

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে,চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন ।

আলীনগর বিওপিসভায় জানান, চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমামত্ম এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

সিংগারবিল বিওপিসভায় জানান চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে।

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বিজয়নগর থানা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান।

সভাপতি জানান যে, প্রত্যেক ইউনিয়নে চোরাচালান সংক্রামত্ম সভা করতে হবে এবং মাদ্রকদ্রব্য ব্যবহারের কুফল ও চোরাচালান সর্ম্পকে সচেতনামূলক সভা করা হবে। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। আসামীসহ মালামাল আটক কারার জন্য  বিওপি প্রধানকে অনুরোধ জানান হয়। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়। চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্তে যে কোন সময়ে আমাকে অবহিত করা হলে দ্রম্নত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান রাখার স্বার্থে চোরাচালান প্রতিরোধে সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত ডিসেম্বর ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জদ্বকৃত তালিকার বিবরণ (ডিসেম্বর/১৩)ঃ

 

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

 

 

 

 

 

 

 

আলীনগর ক্যাম্প

বাংলা মদ-১৫ লিটার

ভারতীয় জিরা-৫০ কেজি

ভারতীয় কিসমিছ-১৫ কেজি

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৬০ বোঃ

ভারতীয় চাদর-০৩ টি

ভারতীয় জট গাজা-১৩ কেজি

ভারতীয় ফেনসিডিল-৬৮ বোঃ

ভারতীয় স্ক্যাকেফ- ১৬ বোঃ

৫,১০,৬৪০/-

১৬,৫০০/-

৫,২৭,১৪০/-

২টি

১১টি

সিংগারবিল

-

--

--

--

--

--

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি- ১৯২ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৩ কেজি

২,৯৮,৫০০/-

--

২,৯৮,৫০০/-

--

৬টি

লক্ষ্মিপুর

ভারতীয় হুইস্কি= ২৯ বোতল

৪৩,৫০০/-

--

৪৩,৫০০/-

--

৩টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় জট গাজা-৪ কেজি

ভারতীয় গুড়া গাজা-৪ কেজি

নাস্টার ৯০০০ হুইস্কি=২৪ বোতল

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৪৭ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল-১৫ বোঃ

বাংলাদেশী বেসুন=৫০ কেজি

 

১,৪০,৫০০/-

 

১৫০০/-

 

১,৪২,০০০/-

 

১টি

 

 

৯টি

                  সর্বমোট

৯,৯৩,১৪০/-

১৮,০০০/-

১০,১১,১৪০/-

৩টি

২৯টি

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৪-                                                তারিখঃ ২১/০১/২০১৪ খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

219.           জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                              উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

220.           জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

221.           জনাব মোঃ আল মামুন                                     চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

222.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                          চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

223.          জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

224.           জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম                             চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

225.          জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

226.          জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

227.          জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা প্রশিÿক,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

228.          জনাব সুবেদার প্রভানন্দ রিহিন                                     কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

229.          জনাব হাবিলদার মোঃ আশরাফ আলী                 আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

230.          জনাব সুবেদার মোঃ রফিকুল আলম                              সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির নভেম্বর/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৭/১১/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ় করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য অক্টোবর/২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত

 সেটেম্বর /২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  অক্টোবর/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। পাহাড়পুর, ইউপি সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি উন্নয়নে  বিজিবি নিয়োজিত থাকায় বিজিব প্রতিনিধি সভায় অনুপস্থিত। বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি সভায়  জানান যে,চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে সকল ইউপি সদস্য সর্বদা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন ।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন,চোরাচালান প্রতিরোধে  বিজিবি ও পুলিশ বাহিনী আমত্মরিকতার সাথে কাজ করলে চোরাচালান প্রতিরোধ করা সম্ভব।

চেয়ারম্যান চান্দুরা ইউপি সভায় বলেন, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি বর্গের সহযোগিতা নেয়ার জন্য  আহবান জানান ।

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন, সীমামত্ম  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধ করা সহজ হবে।

উপজেলা শিÿা অফিসারসভায় জানান, চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমামত্ম এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

চেয়ারম্যান পত্তন ইউপি সভায় বলেন, সীমামত্ম  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধ করা সহজ হবে। চোরাচালান প্রতিরোধে সচেতনামূলক লিফলেট প্রচার করার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করেন।

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বিজয়নগর থানা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ও বিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান।

সভাপতি জানান যে, প্রত্যেক ইউনিয়নে চোরাচালান সংক্রামত্ম সভা করতে হবে এবং মাদ্রকদ্রব্য ব্যবহারের কুফল ও চোরাচালান সর্ম্পকে সচেতনামূলক সভা করা হবে। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। আসামীসহ মালামাল আটক কারার জন্য  বিওপি প্রধানকে অনুরোধ জানান হয়। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়। চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্তে যে কোন সময়ে আমাকে অবহিত করা হলে দ্রম্নত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান রাখার স্বার্থে চোরাচালান প্রতিরোধে সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

বিজিবি প্রতিনিধি থেকে চোরাচালান সংক্রামত্ম প্রতিবেদন পাওয়া যায়নি।

সিদ্ধামত্মঃবিজিবি প্রতিনিধি সভায় অনুপস্থিত থাকলে ও চোরাচালান সংক্রামত্ম প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ       /১২/২০১৩ খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

231.          জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                              উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

232.          জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

233.         জনাব মোঃ আল মামুন                                     চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

234.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                          চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

235.          জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

236.         জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম                             চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

237.          জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                                    উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

238.          জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

239.          জনাব  ফরিদা আক্তার                                              উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

1.       জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                                   উপজেলা প্রশিÿক,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

2.      জনাব সুবেদার প্রভানন্দ রিহিন                               কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

3.      জনাব হাবিলদার মোঃ আশরাফ আলী                       আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

4.       জনাব সুবেদার মোঃ রফিকুল আলম                                    সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির সেপ্টেম্বর/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৭/১১/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে দৃঢ়করণ করাহয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরম্ন করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য অক্টোবর/২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত

 সেটেম্বর /২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধামত্ম

বাসত্মবায়নকারী

কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রামত্ম

সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  অক্টোবর/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া গিয়াছে। পাহাড়পুর, ইউপি সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমামত্মবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমামত্মবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশিস্নষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরম্নত্ব দিতে হবে।

সীমামত্মবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রামত্ম

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশিস্নষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য আগস্ট ২০১৩ মাসে ৪৪৮টি অভিযানের মাধ্যমে ৩৯,৬৩,০৮০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৩৯টি মামলা সংশিস্নষ্ট ০১ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে,চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন ।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন, শারদীয় দুর্গা পূজা ও পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলÿÿ চোরাচালান যেন বৃদ্ধি না পায় সে বিষয়ে বিজিবি তৎপর থাকতে হবে। এছাড়া পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলÿÿ প্রতিবছর গরম্ন চুরি হয়ে থাকে এই বিষয়ে বিজিবি বাহিনী রাত্রের বেলা গরম্নর গাড়ীকে আটক করে জিজ্ঞাসা করার জন্য অনুরোধ করেন।

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন, সীমামত্ম  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধ করা সহজ হবে। চোরাচালান প্রতিরোধে সচেতনামূলক লিফলেট প্রচার করার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করেন।

আলীনগর বিওপিসভায় জানান, চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমামত্ম এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

সিংগারবিল বিওপিসভায় জানান চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে।

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন, সীমামত্ম  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধ করা সহজ হবে। চোরাচালান প্রতিরোধে সচেতনামূলক লিফলেট প্রচার করার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করেন।

অফিসার ইনর্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বিজয়নগর থানা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমামত্ম এলাকার সকলসত্মরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশিস্নষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ওবিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান।

সভাপতি জানান যে, প্রত্যেক ইউনিয়নে চোরাচালান সংক্রামত্ম সভা করতে হবে এবং সীমামত্মবর্তী স্কুলগুলোতে মাদ্রকদ্রব্য ব্যবহারের কুফল ও চোরাচালান সর্ম্পকে সচেতনামূলক সভা করা হবে। চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আমত্মরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। আসামীসহ মালামাল আটক কারার জন্য  বিওপি প্রধানকে অনুরোধ জানান হয়। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়। চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্তে যে কোন সময়ে আমাকে অবহিত করা হলে দ্রম্নত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশিস্নষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান রাখার স্বার্থে চোরাচালান প্রতিরোধে সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

 

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমামত্মবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ  সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত আগস্ট/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 

 

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জদ্বকৃত তালিকার বিবরণ (আগস্ট/১৩)ঃ

 

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অমর্ত্মমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

 

 

 

 

 

 

 

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-১৩৬ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-২৯ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-২২.৭০০ কেজি

বাংলা মদ-৫ লিটার

মাহিন্দ বড় ট্রাক-১টি

পিরানহা মাছ-১০০০কেজি

সিএনজি-২টি

৪,০৯,৭৫০/-

২৪,৯৬,২০০/-

২৯,০৫,৯৫০/-

১টি

১৬টি

সিংগারবিল

ভারতীয় কেস্টল প্রাইড হুঃ ১৩৬ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল-১২ বোঃ

ভারতীয় এস ক্যাপ-০৫ বোঃ

ভারতীয় নাসির বিড়ি-০৬ ব্যান্ডেল

ভারতীয় জট গাজা-৪৫০০ কেজি

ভারতীয় বু-প্রেনর ফাইন-১৯৫ পিস

২,৬৮,০৫০/-

১৬,৫০০/-

২,৪৮,৫৫০/-

--

০৭টি

 

মুকুন্দপুর

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৫৯ বোঃ

হিম্যান ৯০০০-২০ বোতল

 

১,৩২,৫০০/-

--

১,৩২,৫০০/-

--

৭টি

লক্ষ্মিপুর

ভারতীয় ল্যাক্সি আই চশমা -৮০০ পিছ

হিম্যান ৯০০০-২৩ বোতল

অফিসার চয়েস হুইস্কি=১০ বোতল

 

৪,৪৯,৫০০/-

--

৪,৪৯,৫০০/-

--

৩টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় জট গাজা-১ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি=১২১ বোতল

বাংলাদেশী মাছ(তেলাপিয়া,মৃগেল,শরপুটি)=৩৫কেজি

 

১,৮৫,০০০/-

 

৬,০৮০/-

 

১,৯১,০৮০/-

--

 

 

৬টি

                  সর্বমোট

১৪,৪৪,৮০০/-

২৫,১৮,৭৮০/-

৩৯,৬৩,৫৮০/-

১টি

৩৯টি

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ       /১০/২০১৩ খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ।

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

 

মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

240.           জনাব মোহাম্মদ বশিরম্নল হক ভুঞা                              উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

241.           জনাব রসুল আহমদ নিজামী                           অফিসার ইনর্চাজ,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

242.           জনাব মোঃ আল মামুন                                     চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

243.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                          চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

244.           জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা প্রশিÿক,আঃ ও ভি ডি পি অফিস, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

245.           জনাব মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                          চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

246.          জনাব সুবেদার মোঃ রফিকুল আলম                              সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

247.           জনাব সুবেদার প্রভানন্দ রিহিন                                     কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

248.           জনাব মোঃ তাজুল ইসলাম                             চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

249.           জনাব হাবিলদার মোঃ আশরাফ আলী                 আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

250.           জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                                    উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

251.           জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ হোসেন                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

252.          জনাব  মোঃ মনিরম্নল ইসলাম                         উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার পক্ষে, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির আগস্ট/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরুল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৭/০৮/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য জুলাই /২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত

জুন /২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জুলাই/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশি­ষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরুত্ব দিতে হবে।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশি­ষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য জুলাই ২০১৩ মাসে ৫৪৮টি অভিযানের মাধ্যমে ৫৫,১৪,৭৫০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৪৪টি মামলা সংশি­ষ্ট ০৬ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে সকলের সহযোগিতা কামনা  করেন।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন, মাদকাসক্তিযুব সমাজকে একবারে ধ্বংস দিচ্ছে। সমাজে যাহারা চোরাচালান কাজে জড়িত তাদেরকে আর্থকমসংস্থানের ব্যবস্থা করে এই পেশা থেকে ফিরে আনতে হবে। নেশাগ্রস্থ হয়ে নিজের পরিবারকে ধ্বংস করে দিচ্ছে যুব সমাজ। চোরাচালান কাজে যাহারা জড়িত তাদেরকে সামাজিকভাবে ঘৃণা করতে হবে।

চেয়ারম্যান সিংগারবিল ইউপি সভায় বলেন, বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তবর্তী এলাকায় একসময় চোরাচালানের পরিমান অনেক বেশী ছিল। বর্তমানে অভিযানের মাধ্যমে চোরাচালান অনেককমে আসছে। সমাজে যারা চোরাচালান কাজে জড়িত তাদের বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ এবং যারা ভাল মানুষ তাদেরকে যেন হয়রানী না করা হয় সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য প্রশাসনকে অনুরোধ করেন।

আলীনগর বিওপিসভায় জানান, চোরাচালান প্রতিরোধে সকলে স্ব স্ব দায়িত্ব পালন করলে চোরাচালান প্রতিরোধ করা সম্ভব।

সিংগারবিল বিওপিসভায় জানান চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে।

উপজেলা  কমান্ড, বিজয়নগর সভায় জানান যে, সীমান্তবর্তী ইউপিতে নিয়মিত চোরাচালান সভা  করে চোরাচালান সর্ম্পকে জনগণকে সচেতন করতে হবে।

জনাব মোঃ শাহ আলম, এস আই, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বিজয়নগর থানা তৎপর রয়েছে। জুলাই/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ৮৭ কেজি গাঁজা ৫১৩টি ফেন্সিডিল বোতল ৫০০ লিটার মদ১০কেজি জিরা ২০টি ভারতীয় হুইস্কী ও ১টি প্রাইভেটকারসহ উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রান্ত ১৬টি মামলা করা হয় এবং ২৭জনকে গ্রেফতার করা হয়।

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্তে যে কোন সময়ে আমাকে অবহিত করা হলে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আমরা অপরাধকে ঘৃণা করব অপরাধীকে নয়। ভাল মানুষ যেন হয়রানীর শিকার না হয় সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান রাখার স্বার্থে চোরাচালান প্রতিরোধে সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

৩. সমাজে ভাল মানুষ যাহারা হয়রানীর শিকার হচ্ছে তাদের নামসহ তথ্যাদি দাখিল করার জন্য বলা হলো।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত জুলাই/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জদ্বকৃত তালিকার বিবরণ (জুলাই/১৩)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অর্ন্তমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

 

 

 

 

 

 

 

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-৬৮ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮৫ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-১৯ কেজি

ভারতীয় গুড়া গাজা-১২ কেজি

ভারতীয় শাড়ীসহ বড় ট্রাক-১টি

১২,৯৯,৬৫০/-

৩৪,০২,৩০০/-

৪৭,০১,৯৫০/-

৬টি

১৬টি

সিংগারবিল

ভারতীয় হুইস্কি ৫৬ বোঃ,

ভারতীয় কেস্টল প্রাইড হুইস্কি ০৩ বোঃ

বাংলাদেশী কাপু মাছ ২৫কেজি

ভারতীয় জট গাজা-১২ কেজি

ভারতীয় মাস্টার বিয়ার-১৪ বোঃ

২,০৮,৩০০/-

৪,২০০/-

২,১২,৫০০/-

--

১৭টি

 

মুকুন্দপুর

ভারতীয় জট গাজা-৫২ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৪০ বোঃ

ভারতীয় আইকন-০৮ বোঃ

পিরানহা মাছ=৩০০কেজি

 

ভারতীয় জিরা-১০কেজি

ভারতীয় কিছমিছ-১০কেজি

২,৫৩,৮০০/-

১,৩৮,০০০/-

৩,৯১,৮০০/-

--

৭টি

লক্ষ্মিপুর

ভারতীয় ব্যাকপাইপার হুইস্কি=২০ বোঃ

৩০,০০০/-

--

৩০,০০০/-

--

১টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় জট গাজা-২১ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি=৭০ বোতল

 

১,৭৮,৫০০/-

--

 

১,৭৮,৫০০/-

--

 

 

৩টি

                  সর্বমোট

১৯,৭০,২৫০/-

৩৫,৪৪,৫০০/-

৫৫,১৪,৭৫০/-

৬টি

৪৪টি

 

 

            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডারদের প্রতিবেদনের উপর আলোকপাত করে সভাকে জানান যে, চোরাচালান মালামাল  ধরে মূল্য নির্ধারণ করার বিষয়টি সঠিকভাবে যাচাইবাছাই করে করতে হবেএবং মূল্য নির্ধারণ করার র্চাট একটি দাখিল করার জন্য অনুরোধ করেন। চোরাচালান অভিযানে মালামালসহ পাচারকারীকে আটক করতে হবে।

 

সিদ্ধান্তঃ চোরাচালান প্রতিরোধ অভিযানে মালামাল আটককালে আসামী আটক করার বিষয়ের  বিজিবি ক্যাম্প এর সকল কোম্পানী কমান্ডারগণকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

মোহাম্মদ বশিরুল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                       তারিখঃ       /০৯/২০১৩ খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

মোহাম্মদ বশিরুল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

253.          জনাব মোহাম্মদ বশিরুল হক ভুঞা                                উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

254.           জনাব মোঃ শাহ আলম                                             এস আই,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

255.          জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                            চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

256.          জনাব সুবেদার প্রভানন্দ রিহিন                                     কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

257.          জনাব সুবেদার মোঃ জহির আলী                                  সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

258.          জনাব হাবিলদার মোঃ আশরাফ আলী                 আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

259.          জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                                    উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

260.          জনাব  মোঃ মনিরুল ইসলাম                           উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার পক্ষে, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

261.          জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা আনসার ও ভি ডি পি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

262.          জনাব মোঃ আল মামুন                                     চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

263.         জনাব মোঃ দবির আহম্মেদ                            উপজেলা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

264.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                          চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

265.          জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ                          উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

266.          জনাব মোঃ মাইন উদ্দিন                              ডিএসবি, জেলা বিশেষ শাখা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির জুলাই/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরুল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ৩০/০৭/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য জুন /২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত

মে /২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জুন/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পর্যায়ে চোরাচালান বিরোধী সভা নিয়মিত অনুষ্ঠান অব্যাহত রাখার পাশাপাশি আয়োজিত সভা যেন সংশি­ষ্ট এলাকায় ফলপ্রসূ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হয় এ বিষয়ে গুরুত্ব দিতে হবে।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশি­ষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য জুন ২০১৩ মাসে ৩৮২টি অভিযানের মাধ্যমে ৯৪,৬২,৫৭০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৩৪টি মামলা সংশি­ষ্ট ০৩ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে সকলের সহযোগিতা কামনা  করেন।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন, চোরাচালান প্রতিরোধে ইউপি সদস্যগণ তৎপর রয়েছে।সকলের সমন্বয়ে চোরাচালান প্রতিরোধ করা সম্ভব ।

আলীনগর বিওপিসভায় জানান, সরকারী ভাবে নিষিদ্ধ পিরানহা মাছ পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে পাচার হচ্ছে। চোরাচালান প্রতিরোধে সকলে স্ব স্ব দায়িত্ব পালন করলে চোরাচালান প্রতিরোধ করা সম্ভব।

সিংগারবিল বিওপিসভায় জানান চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে।

উপজেলা  কমান্ড, বিজয়নগর সভায় জানান যে, চোরাচালান অভিযান অব্যাহত  রাখার জন্য সকলকে অনুরোধ জানান।

তদন্তকারী কর্মকর্তা, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বিজয়নগর থানা তৎপর রয়েছে। জুন/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে জিরা ১৫০ কেজি কিসমিছ ২৯১ কেজি ১০ কেজি গাঁজা ১৫০০০টি বিশেষ ট্যাবলেট ২০ বোতল ফেন্সিডিল ১০০পুড়িরা হিরোইন ও ৪টি ১০০০টাকার জাল নোট উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রান্ত ১৫টি মামলা করা হয়।

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান রাখার স্বার্থে পবিত্র রমজান ও ঈদ উল-ফিতর উপলক্ষেচোরাচালান প্রতিরোধে সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে।

৩.নিয়মিত চোরাচালান প্রতিরোধকর্মকান্ডের প্রতিবেদন প্রেরণ নিশ্চিত করতে হবে ও কোন তথ্য না থাকলে শূন্য প্রতিবেদন প্রেরণ করতে হবে এবং সভার পূর্বে প্রেরণ না করা হলে প্রতিবেদন সভায় নিয়ে আসতে হবে।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত জুন/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জদ্বকৃত তালিকার বিবরণ (জুন/১৩)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অর্ন্তমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

 

 

 

 

 

 

 

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩২ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮৫ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৮ কেজি

ভারতীয় গুড়া গাজা-১ কেজি

ভারতীয় শাড়ীসহ বড় ট্রাক-২টি

৫,৬৪,২২০/-

৮৩,২৫,২০০/-

৮৮,৮৯,৪২০/-

২টি

১২টি

সিংগারবিল

ভারতীয় হুইস্কি ৫৬ বোঃ,

ভারতীয় কেস্টল প্রাইড হুইস্কি ০৩ বোঃ

বাংলাদেশী কাপু মাছ ২৫কেজি

ভারতীয় জট গাজা-১২ কেজি

ভারতীয় মাস্টার বিয়ার-১৪ বোঃ

১,৫১,২৫০/-

--

১,৫১,২৫০/-

১টি

৮টি

 

মুকুন্দপুর

বাইসাইকেল-০১টি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৬৯ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩৭ বোঃ

বাংলাদেশী হাস-০৬টি

১,২১,৩০০/-

১,২০০/-

১,২২,৫০০/-

--

৮টি

লক্ষ্মিপুর

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩৬ বোঃ

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি=৪৭ বোঃ

৮৪,৯০০/-

--

৮৪,৯০০/-

--

২টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় জট গাজা-০৩ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি=১২৬ বোতল

 

২,১৪,৫০০/-

--

 

২,১৪,৫০০/-

--

 

 

৪টি

                  সর্বমোট

১১,৩৬,১৭০/-

৮৩,২৬,৪০০/-

৯৪,৬২,৫৭০/-

৩টি

৪টি

 

 

            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডারদের প্রতিবেদনের উপর আলোকপাত করে সভাকে জানান যে, চোরাচালান মালামাল  ধরে মূল্য নির্ধারণ করার বিষয়টি সঠিকভাবে যাচাইবাছাই করে করতে হবেএবং মূল্য নির্ধারণ করার র্চাট একটি দাখিল করার জন্য অনুরোধ করেন। চোরাচালান অভিযানে মালামালসহ পাচারকারীকে আটক করতে হবে।

 

সিদ্ধান্তঃ চোরাচালান প্রতিরোধ অভিযানে মালামাল আটককালে আসামী আটক করার বিষয়ের  বিজিবি ক্যাম্প এর সকল কোম্পানী কমান্ডারগণকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

মোহাম্মদ বশিরুল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-৫৯৫                                                তারিখঃ ৩০/০৭/২০১৩ খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

 

মোহাম্মদ বশিরুল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

267.          জনাব মোহাম্মদ বশিরুল হক ভুঞা                                উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

268.          জনাব মোঃ শাহ আলম                                             এস আই,বিজয়নগর থানা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

269.          জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                            চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

270.           জনাব সুবেদার প্রভানন্দ রিহিন                         কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

271.           জনাব সুবেদার মোঃ জহির আলী                                  সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

272.          জনাব হাবিলদার মোঃ আশরাফ আলী                 আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

273.          জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                                    উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

274.           জনাব  মোঃ মনিরুল ইসলাম                           উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার পক্ষে, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

275.          জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                             উপজেলা আনসার ও ভি ডি পি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

276.          জনাব মোঃ আল মামুন                                     চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

277.          জনাব মোঃ দবির আহম্মেদ                            উপজেলা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

278.          জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                          চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

279.          জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ                          উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

280.            জনাব মোঃ মাইন উদ্দিন                              ডিএসবি, জেলা বিশেষ শাখা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

                                               

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির  ফেব্রুয়ারী ’২০১৩  মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ ড.আশরাফুল আলম

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৭/০২/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান অনেকটা হ্রাস পেয়েছে। তবে চোরাপথে এদেশ হতে মাছ ও ঔষুধ চোরাচালান হয়ে থাকে বলে সভাকে জানান । এ বিষয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য ফেব্রুয়ারী ২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত জানুয়ারী ২০১৩খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জানুয়ারী/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটিরবিষ্ণপুর, পাহাড়পুর,সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায়নি।  সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে   অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন সমূহে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির  নিয়মিত সভা করে যথাসময়ে কার্যবিবরণী প্রেরণ করার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেননিয়মিত চোরাচালান অভিযান পরিচালনাকরতে হবে এবং মালামালের সাথে আসামী ধরতে হবে।

চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি  সভায় বলেনমুকুন্দপুর এলাকার  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশি­ষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

সভায় বলেন সে চোরাচালান অব্যাহত আছে। তা প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার সকলস্তরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ওবিজিবির প্রতি আহবান জানান।

আলীনগর বিওপিসভায় জানান  চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমান্ত এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

 

সভায় মুকুন্দপুর  কোম্পানী কমান্ডার জানান যে,চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন । এমাসে আসামী বিহীন মামলা হয়েছে ১০টি। ফেন্সিডিল  এবং রিকোডেক্স সিরাপসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য ভারত থেকে পাচার হয়ে আসছে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল সভায় জানান যে, সীমান্ত  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধের মতামত ব্যক্ত করেন। চোরাচালান প্রতিরোধে সচেতনামূলক লিফলেট প্রচার করার জন্য প্রস্তাব করেন।

 

অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান পাচারের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের নামের তালিকা দাখিল করলে গ্রেফতারপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। আসামীসহ মালামাল আটক কারার জন্য  বিওপি প্রধানকে অনুরোধ জানান হয়। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়।

১.চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.অভিযান পরিচালনা কালে আসামী ধরার বিষয়ে আরোও তৎপর হতে হবে।

৩.অবৈধ সীমান্ত অতিক্রমের  প্রবণতা নিরুৎসাহিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের  সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

৪. চোরাচালান প্রতিরোধে জনসচেতন বৃদ্ধির লক্ষ্যে লিফলেট প্রচার করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার,মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক,কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত জানুয়ারী/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 বি জি বি এর জানুয়ারী /১৩  মাসের চোরাচালান বিরোধী অভিযানের প্রতিবেদনঃ-

ক্রমিক নং

বিওপি/থানার নাম

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য

মোট মূল্য

           মামলার বিবরণ

অন্তর্মুখী

বহির্মুখী

আসামীসহ মামলার সংখ্যা

আসামীবিহীন মামলার সংখ্যা

 মোট মামলার  সংখ্যা

 

 

লক্ষীপুরবি ও পি

২০,৮০০/-

--

২০,৮০০/-

 

০১

০১

মুকুন্দপুর বি ও পি

১,৬১,৯০০/-

২,৪০০/-

১,৬৪,৩০০/-

 

০৮

০৮

বিষ্ণপুর  বিওপি

১,০০,২২০/-

৭,৫০০/-

১,০৭,৭২০/-

০৯

১০

আলীনগর  বিওপি

৩,২১,৮০০/-

--

৩,২১,৮০০/-

০৮

০৯

সিংগারবিল বিওপি

৩,৪৮,৪০০/-

৭,৪৫০/-

৩,৫৫,৮৫০/-

--

১১

১১

 

      মোট

৯,৫৩,১২০/-       

১৭,৩৫০/

৯,৭০,৪৭০/-

০২

৩৭

৩৯

 

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল গুলো হল, পাতার বিড়ি,ব্যাগপাইপার,হিমেন হুইস্কি, আইকন হুইস্কি, বাইসাইকেল,রিকোডেক্স, জটগাজা,  ফেন্সিডিল, বাংলাদেশী ঔষুধ, হাসেঁর ডিম, চোলাই মদ, বাংলাদেশী মাছইত্যাদি।

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং  ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ ০৪/০৩ /২০১৩খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য,ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দ (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে)ঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

০১. জনাব ড.আশরাফুল আলম                                    উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোঃ রসুল নিজামী                         অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব মোঃ আল মামুন                                       চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                                  চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                     চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬.জনাব নায়েব সুবেদার আবু তাহের                            কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. জনাব মোঃ মাসুক মিয়া                                       আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির  মার্চ/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ ড.আশরাফুল আলম

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৮/০৩/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য মার্চ/২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত ফেব্রুয়ারী/২০১৩খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  ফেব্রুয়ারী/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন সমূহে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির  নিয়মিত সভা করে যথাসময়ে কার্যবিবরণী প্রেরণ করার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশি­ষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে,বিবেচ্য ফেব্রুয়ারী ২০১৩ মাসে ৩৯১ অভিযানের মাধ্যমে ১৪,৬৮,৭১০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৫২টি মামলা সংশি­ষ্ট ০৮ জনকে আটক করা হয়েছে।চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে,মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নে দায়িত্বগ্রহণের পর থেকে চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে।আউলিয়া বাজার এলাকাকে মাদক মুক্ত করার জন্য সকলকে নিয়ে সভা করা হয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয় ।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন

 যারা চোরাচালান করে তাদেরকে বয়কট করতে হবে এবং যারা প্রকৃতদোষী তাদের বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

 

চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি  সভায় বলেনঅত্র উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশি­ষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

 

আলীনগর বিওপিসভায় জানান  চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমান্ত এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। সীমান্ত এলাকায় সাধারণ জনগণসাবধানতার সাথে গরু পালন করার জন্য অনুরোধ জানান।

 

উপজেলা  কমান্ড, বিজয়নগর সভায় জানান যে, বিজয়নগর উপজেলার মধ্যে আউলিয়া বাজারে সবচেয়ে বেশি মাছ কেনাবেচা হয়। মাছ পাশ্ববর্তী দেশে যেন পাচার না হয় সে বিষয়ে সকলকে দৃষ্টি রাখতে হবে।

 

অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার সকলস্তরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ওবিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান।ফেব্রুয়ারী/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ফেনসিডিল ২৭ বোতল, বিয়ার ৪ বোতল, হুইস্কি ৪ বোতল, মদ ২ বোতল, ইয়াবা ট্যাবলেট ১০০পিছ মালামাল উদ্ধার করা হয়। ০৫টি মামলায় ০৫জন আসামী গ্রেফতার করা হয়।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

১.চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি ও কার্যকর করতে হবে।

৩. চোরাচালান প্রতিরোধে জনসচেতন বৃদ্ধির লক্ষ্যে লিফলেট প্রচার করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার,মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত ফেব্রুয়ারী/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 বি জি বি এর ফেব্রুয়ারী /১৩  মাসের চোরাচালান বিরোধী অভিযানের প্রতিবেদনঃ-

ক্রমিক নং

বিওপি/থানার নাম

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য

মোট মূল্য

           মামলার বিবরণ

অন্তর্মুখী

বহির্মুখী

আসামীসহ মামলার সংখ্যা

আসামীবিহীন মামলার সংখ্যা

 মোট মামলার  সংখ্যা

 

 

লক্ষীপুর বি ও পি

৪৬,৫১০/-

--

৪৬,৫১০/-

 

০১

০১

মুকুন্দপুর বি ও পি

১,১৪,০০০/-

--

১,১৪,০০০/-

 

০৩

০৩

বিষ্ণপুর  বিওপি

৩,২৬,৫০০/-

৯,৭০০/-

৩,৩৬,২০০/-

-

০৯

০৯

আলীনগর  বিওপি

৫,২২,৮০০/-

--

৫,২২,৮০০/-

১৪

১৬

সিংগারবিল বিওপি

৩,৪৯,২০০/-

--

৩,৪৯,২০০/-

১৭

১৮

 

      মোট

১৩,৫৯,০১০/-       

৯,৭০০/-

১৩,৬৮,৭১০/-

০৩

৪৪

৪৭

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল গুলো হল, পাতার বিড়ি, ব্যাগপাইপার, হিমেন হুইস্কি, আইকন হুইস্কি, বাইসাইকেল, রিকোডেক্স, জটগাজা,  ফেন্সিডিল, বাংলাদেশী ঔষুধ, হাসেঁর ডিম, চোলাই মদ, বাংলাদেশী মাছ  ইত্যাদি।

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ ৩১/০৩/২০১৩খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

০১. জনাব ড.আশরাফুল আলম                                    উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোঃ রসুল নিজামী                                     অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব মোঃ আল মামুন                                       চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                                  চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                     চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬.জনাব এ ব্যানাজী                                               কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. জনাব মোঃ মাসুদ মিয়া                                       আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৮. জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                                    উপজেলা আনসার ও ভি ডি পি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৯. জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                               উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 


গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির এপ্রিল/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ ড. আশরাফুল আলম

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৯/০৪/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য এপ্রিল/২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত মার্চ/২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  ফেব্রুয়ারী/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন সমূহে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির  নিয়মিত সভা করে যথাসময়ে কার্যবিবরণী প্রেরণ করার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশি­ষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য মার্চ ২০১৩ মাসে ৬৯টি অভিযানের মাধ্যমে ১৩,৬৮,৭১০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৪৭টি মামলা সংশি­ষ্ট ০৩ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নে দায়িত্বগ্রহণের পর থেকে চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে। আউলিয়া বাজার এলাকাকে মাদক মুক্ত করার জন্য সকলকে নিয়ে সভা করা হয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয় ।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন

 যারা চোরাচালান করে তাদেরকে বয়কট করতে হবে এবং যারা প্রকৃতদোষী তাদের বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

 

চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি  সভায় বলেনঅত্র উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশি­ষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

 

আলীনগর বিওপিসভায় জানান  চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমান্ত এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। সীমান্ত এলাকায় সাধারণ জনগণ সাবধানতার সাথে গরু পালন করার জন্য অনুরোধ জানান।

 

উপজেলা  কমান্ড, বিজয়নগর সভায় জানান যে, বিজয়নগর উপজেলার মধ্যে আউলিয়া বাজারে সবচেয়ে বেশি মাছ কেনাবেচা হয়। মাছ পাশ্ববর্তী দেশে যেন পাচার না হয় সে বিষয়ে সকলকে দৃষ্টি রাখতে হবে।

 

অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার সকলস্তরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ওবিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। ফেব্রুয়ারী/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ফেনসিডিল ২৭ বোতল, বিয়ার ৪ বোতল, হুইস্কি ৪ বোতল, মদ ২ বোতল, ইয়াবা ট্যাবলেট ১০০পিছ মালামাল উদ্ধার করা হয়। ০৫টি মামলায় ০৫জন আসামী গ্রেফতার করা হয়।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি ও কার্যকর করতে হবে।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত ফেব্রুয়ারী/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 বি জি বি এর ফেব্রুয়ারী /১৩  মাসের চোরাচালান বিরোধী অভিযানের প্রতিবেদনঃ-

ক্রমিক নং

বিওপি/থানার নাম

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য

মোট মূল্য

           মামলার বিবরণ

অন্তর্মুখী

বহির্মুখী

আসামীসহ মামলার সংখ্যা

আসামীবিহীন মামলার সংখ্যা

 মোট মামলার  সংখ্যা

 

 

লক্ষীপুর বি ও পি

৪৬,৫১০/-

--

৪৬,৫১০/-

 

০১

০১

মুকুন্দপুর বি ও পি

১,১৪,০০০/-

--

১,১৪,০০০/-

 

০৩

০৩

বিষ্ণপুর  বিওপি

৩,২৬,৫০০/-

৯,৭০০/-

৩,৩৬,২০০/-

-

০৯

০৯

আলীনগর  বিওপি

৫,২২,৮০০/-

--

৫,২২,৮০০/-

১৪

১৬

সিংগারবিল বিওপি

৩,৪৯,২০০/-

--

৩,৪৯,২০০/-

১৭

১৮

 

      মোট

১৩,৫৯,০১০/-       

৯,৭০০/-

১৩,৬৮,৭১০/-

০৩

৪৪

৪৭

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল গুলো হল, পাতার বিড়ি, ব্যাগপাইপার, হিমেন হুইস্কি, আইকন হুইস্কি, বাইসাইকেল, রিকোডেক্স, জটগাজা,  ফেন্সিডিল, বাংলাদেশী ঔষুধ, হাসেঁর ডিম, চোলাই মদ, বাংলাদেশী মাছ  ইত্যাদি।

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ ৩১/০৩/২০১৩খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

০১. জনাব ড.আশরাফুল আলম                                    উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোঃ রসুল নিজামী                                     অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব মোঃ আল মামুন                                       চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                                  চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                     চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬.জনাব এ ব্যানাজী                                               কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. জনাব মোঃ মাসুদ মিয়া                                       আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৮. জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                                    উপজেলা আনসার ও ভি ডি পি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৯. জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                               উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির জুন/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ ড. আশরাফুল আলম

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ৩০/০৬/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য মে /২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত

এপ্রিল /২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  মে/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন সমূহে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির  নিয়মিত সভা করে যথাসময়ে কার্যবিবরণী প্রেরণ করার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশি­ষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য মে ২০১৩ মাসে ২৭৫টি অভিযানের মাধ্যমে ১০,৮৯,৬৪৫/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৪১টি মামলা সংশি­ষ্ট ০৭ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপররয়েছে।চোরাচালান প্রতিরোধে সকলের সহযোগিতা কামনা  করেন।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন, চোরাচালান প্রতিনিয়ত কমে আসছে একে নিয়ন্ত্রণ করতে হলে সকলে ঐক্যভাবে কাজ করতে হবে। সীমান্তবর্তী এলাকায় সকলের সমন্বয়ে টাস্কর্ফোস এর মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করার জন্য অনুরোধ করেন। ভাল লোক যাতে হয়রানী না হয় সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।

চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি  সভায় জানান ডিবি বাহিনী সিভিল ড্রেসে সন্দেহবশত ভাল মানুষকে আটক করে টাকার বিনিময়ে রাস্তায় ছেড়ে দেয়। যাহারা অপরাধী তাদেরকে আইনের আওতায় এনে বিচার করার জন্য অনুরোধ করেন।

আলীনগর বিওপিসভায় জানান  চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমান্ত এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। সীমান্ত এলাকায় সিভিল ড্রেসে র‌্যাব ও ডিবি বাহিনী বিজিবির সহায়তা না নিয়ে আসামী ও চোরাচালান সামগ্রী আটক করতে যায়। এতে করে যে কোন সময় অঘটন গঠতে পারে। বর্ষা মৌসুম শুরু হওয়ায় সীমান্ত এলাকায় টহল দেওয়ার জন্য নৌকা প্রয়োজন।

সিংগারবিল বিওপিসভায় জানান সিংগারবিল বাজারের দক্ষিণপাশের ব্রীজটির পাশের জায়গা অবৈধভাবে দখল করায় রাস্তা ছোট হওয়ায় অনেক সময় অভিযান পরিচালনা করতে সমস্যা হয়।

উপজেলা  কমান্ড, বিজয়নগর সভায় জানান যে, চোরাচালান অভিযান অব্যাহত  রাখার জন্য সকলকে অনুরোধ জানান।

অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার সকলস্তরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ওবিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। মে/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ৩৫,০০০/-টাকার  ট্যাবলেটসহ ১১০কেজিগাঁজা উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রান্ত ১৩টি মামলা করা হয়।

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়। সীমান্তবর্তী এলাকায় ডিবি ও র‌্যাব অনুমতি ছাড়া অভিযান পরিচালনা করছে মর্মে লিখিতভাবে অভিযোগ জানানোর জন্য অনুরোধ করেন।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি ও কার্যকর করতে হবে।

৩. সিংগারবিল বাজারে টাস্কর্ফোস গঠন করে উচ্ছেদ কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত মে/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 বি জি বি এর মে /১৩  মাসের চোরাচালান বিরোধী অভিযানের প্রতিবেদনঃ-

ক্রমিক নং

বিওপি/থানার নাম

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য

মোট মূল্য

           মামলার বিবরণ

অন্তর্মুখী

বহির্মুখী

আসামীসহ মামলার সংখ্যা

আসামীবিহীন মামলার সংখ্যা

 মোট মামলার  সংখ্যা

 

 

লক্ষীপুর বি ও পি

৭২,০০০/-

--

৭২,০০০/-

 

০১

০১

মুকুন্দপুর বি ও পি

৬৬,২২০/-

--

৬৬,২২০/-

 

০৪

০৪

বিষ্ণপুর  বিওপি

১,৫১,৬২৫/-

--

১,৫১,৬২৫/-

-

০৫

০৫

আলীনগর  বিওপি

৫,২০,৮০০/-

--

৫,২০,৮০০/-

১১

১৩

সিংগারবিল বিওপি

৩,৫৩,৬০০/-

--

৩,৫৩,৬০০/-

১০

১১

 

      মোট

১১,৬৪,২৪৫/-       

--

১১,৬৪,২৪৫/-

০৩

৩১

৩৪

 

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল গুলো হল, পাতার বিড়ি, ব্যাগপাইপার, হিমেন হুইস্কি, আইকন হুইস্কি, বাইসাইকেল, রিকোডেক্স, জটগাজা,  ফেন্সিডিল, বাংলাদেশী ঔষুধ, হাসেঁর ডিম, চোলাই মদ, বাংলাদেশী মাছ  ইত্যাদি।

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ ৩০/০৬/২০১৩খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

০১. জনাব ড.আশরাফুল আলম                                    উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোঃ রসুল নিজামী                                     অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব মোঃ আল মামুন                                       চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                                  চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                     চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬.জনাব প্রভানন্দ রিছিল                                          কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. জনাব মোঃ শাহজাহান আলী                                  আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৮. জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                                    উপজেলা আনসার ও ভি ডি পি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৯. জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                               উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

১০. জনাব মোঃ জহির আলী                                       সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

১১. জনাব মোঃ দবির আহম্মেদ                                   উপজেলা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

০১. জনাব  শরীফা বেগম                                           উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ                                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব ডাঃ মোঃ আসাদউজ্জামান লস্কর                     পক্ষে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিঃ পঃ কর্মকর্তা,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ হাবীবুর রহমান                                   উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির জুলাই/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ মোহাম্মদ বশিরুল হক ভূঞা

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ৩০/০৭/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের  দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য জুন /২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত

মে /২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জুন/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন সমূহে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির  নিয়মিত সভা করে যথাসময়ে কার্যবিবরণী প্রেরণ করার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশি­ষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য জুন ২০১৩ মাসে ৩৮২টি অভিযানের মাধ্যমে ৯৪,৬২,৫৭০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৩৪টি মামলা সংশি­ষ্ট ০৩ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে সকলের সহযোগিতা কামনা  করেন।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন, চোরাচালান প্রতিনিয়ত কমে আসছে একে নিয়ন্ত্রণ করতে হলে সকলে ঐক্যভাবে কাজ করতে হবে। সীমান্তবর্তী এলাকায় সকলের সমন্বয়ে টাস্কর্ফোস এর মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করার জন্য অনুরোধ করেন। ভাল লোক যাতে হয়রানী না হয় সে বিষয়ে খেয়াল রাখতে হবে।

চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি  সভায় জানান ডিবি বাহিনী সিভিল ড্রেসে সন্দেহবশত ভাল মানুষকে আটক করে টাকার বিনিময়ে রাস্তায় ছেড়ে দেয়। যাহারা অপরাধী তাদেরকে আইনের আওতায় এনে বিচার করার জন্য অনুরোধ করেন।

আলীনগর বিওপিসভায় জানান  চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমান্ত এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। সীমান্ত এলাকায় সিভিল ড্রেসে র‌্যাব ও ডিবি বাহিনী বিজিবির সহায়তা না নিয়ে আসামী ও চোরাচালান সামগ্রী আটক করতে যায়। এতে করে যে কোন সময় অঘটন গঠতে পারে। বর্ষা মৌসুম শুরু হওয়ায় সীমান্ত এলাকায় টহল দেওয়ার জন্য নৌকা প্রয়োজন।

সিংগারবিল বিওপিসভায় জানান সিংগারবিল বাজারের দক্ষিণপাশের ব্রীজটির পাশের জায়গা অবৈধভাবে দখল করায় রাস্তা ছোট হওয়ায় অনেক সময় অভিযান পরিচালনা করতে সমস্যা হয়।

উপজেলা  কমান্ড, বিজয়নগর সভায় জানান যে, চোরাচালান অভিযান অব্যাহত  রাখার জন্য সকলকে অনুরোধ জানান।

অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার সকলস্তরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ওবিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। মে/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ৩৫,০০০/-টাকার  ট্যাবলেটসহ ১১০কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। মাদক ও চোরাচালান সংক্রান্ত ১৩টি মামলা করা হয়।

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশি­ষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়। সীমান্তবর্তী এলাকায় ডিবি ও র‌্যাব অনুমতি ছাড়া অভিযান পরিচালনা করছে মর্মে লিখিতভাবে অভিযোগ জানানোর জন্য অনুরোধ করেন।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি ও কার্যকর করতে হবে।

৩. সিংগারবিল বাজারে টাস্কর্ফোস গঠন করে উচ্ছেদ কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

 

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত জুন/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জদ্বকৃত তালিকার বিবরণ (জুন/১৩)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অর্ন্তমুর্খী মূল্য

বর্হিমুর্খী মূল্য

মোট মূল্য

ধৃত আসামী

মামলার সংখ্যা

 

 

 

 

 

 

 

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩২ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮৫ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৮ কেজি

ভারতীয় গুড়া গাজা-১ কেজি

ভারতীয় শাড়ীসহ বড় ট্রাক-২টি

৫,৬৪,২২০/-

৮৩,২৫,২০০/-

৮৮,৮৯,৪২০/-

২টি

১২টি

সিংগারবিল

ভারতীয় হুইস্কি ৫৬ বোঃ,

ভারতীয় কেস্টল প্রাইড হুইস্কি ০৩ বোঃ

বাংলাদেশী কাপু মাছ ২৫কেজি

ভারতীয় জট গাজা-১২ কেজি

ভারতীয় মাস্টার বিয়ার-১৪ বোঃ

১,৫১,২৫০/-

--

১,৫১,২৫০/-

১টি

৮টি

 

মুকুন্দপুর

বাইসাইকেল-০১টি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-৬৯ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩৭ বোঃ

বাংলাদেশী হাস-০৬টি

১,২১,৩০০/-

১,২০০/-

১,২২,৫০০/-

--

৮টি

লক্ষ্মিপুর

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩৬ বোঃ

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি=৪৭ বোঃ

৮৪,৯০০/-

--

৮৪,৯০০/-

--

২টি

 

বিষ্ণপুর

ভারতীয় জট গাজা-০৩ কেজি

বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি=১২৬ বোতল

 

২,১৪,৫০০/-

--

 

২,১৪,৫০০/-

--

 

 

৪টি

                  সর্বমোট

 

 

 

৩টি

৪টি

 

            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডারদের প্রতিবেদন উপর আলোকপাত করে সভাকে জানান যে, চোরাচালান মালামাল  ধরে মূল্য নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু পাচারকারীকে আটক করা হয়নি। মালামাল আটককালে ২/৩ টা আসামী ধরতে হবে। প্রয়োজন বোধে মোবাইল কোর্ট মাধ্যমে মালামালসহ আসামী আটক বিষয়ে বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডারগনকে পরামর্শ প্রদান করেন।

 

সিদ্ধান্তঃ চোরাচালান প্রতিরোধ অভিযানে মালামাল আটককালে আসামী আটক করার বিষয়ের  বিজিবি ক্যাম্প এর সকল কোম্পানী কমান্ডারগণকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

মোহাম্মদ বশিরুল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ ৩০/০৭/২০১৩ খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.জনাব....................................................................,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

মোহাম্মদ বশিরুল হক ভুঞা

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

০১. জনাব ড.আশরাফুল আলম                                    উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোঃ রসুল নিজামী                                     অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব মোঃ আল মামুন                                       চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                                  চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                     চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬.জনাব প্রভানন্দ রিছিল                                          কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. জনাব মোঃ শাহজাহান আলী                                  আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৮. জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                                    উপজেলা আনসার ও ভি ডি পি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৯. জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                               উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

১০. জনাব মোঃ জহির আলী                                       সিংগারবিল ক্যাম্প বি ও পি,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

১১. জনাব মোঃ দবির আহম্মেদ                                   উপজেলা কমান্ডার, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

      পরিশিষ্ট- ‘খ‘‘

সভায়  অনুপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                       নাম                                                        পদবী

 

০১. জনাব  শরীফা বেগম                                           উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোহাম্মদ আল মাহমুদ                                 উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব ডাঃ মোঃ আসাদউজ্জামান লস্কর                     পক্ষে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিঃ পঃ কর্মকর্তা,বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ হাবীবুর রহমান                                   উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সভায় বলেন সে চোরাচালান অব্যাহত আছে।

 

সীমান্ত  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধের মতামত ব্যক্ত করেন। চন্ডিদ্বার, কসবা সদর, মাদলা ,মইনপুর এলাকায় বিজিবি বাহিনীর টহল জোরদার করার জন্য সভায় আহবান জানান হয়। কসবা পৌরসভাধীন খারপাড়া ও কসবা মহিলা মাদ্রাসা এলাকায়  অভিযান পরিচালনার জন্য সভায় আহবান জানানো হয়। টাস্কফোর্সের মাধ্যমে আসামী গ্রেফতারের জন্য বিওপি প্রধান সভায় মত প্রকাশ করেন।

মেয়র, কসবা পৌরসভা, কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সভায় অনুপস্থিত থাকায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন এবং আগামী সভায় পূর্ণাঙ্গ তথ্য সহ উপস্থিত থাকার আহবান জানান। ভারত থেকে পাচার হয়ে আসা ফেন্সিডিল সহ অন্যান্য মাদক দ্রব্যের বিষয়ে সংশি­ষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানকে দায়ী করেন। বিজিবি বাহিনীর সাথে  পুলিশ বাহিনীকে  চোরাচালান  প্রতিরোধে আন্তরিকতার সাথে কাজ করার জন্য আহবান জানান।

ভাইস- চেয়ারম্যান, কসবা উপজেলা পরিষদ, নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যানদের স্বাগত জানিয়ে চোরাচালানের বিষয়ে বক্তব্য প্রদান করেন। ফেন্সিডিল, মদ, গাজাসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য পাচার হয়ে আসছে বলে সভায় উলে­খ করেন। এ বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য বিজিবি ও পুলিশ বাহিনীকে অনুরোধ করেন।

 জনাব মোঃ রহুল আমিন ভূঞা বকুল, চেয়ারম্যান কসবা উপজেলা পরিষদ সভায় জানান চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি বর্গের সহযোগিতা নেয়ার জন্য বর্ডার গার্ডের প্রতি আহবান জানান এবং বর্ডারগার্ডকে সহযোগিতা করার অনুরোধ করেন। বিজিবি বাহিনী ও পুলিশ বাহিনীকে প্রকৃত  চোরাকারবারী ও মাদকসেবীদেরকে গ্রেফতারের আহবান জানান। বায়েক ইউনিয়নের চারুয়া নামক স্থানে ১২ তারিখ রাতে ধৃত চোরাইমাল থানায় জমা হয়নি ও আসামীদের ধরা হয় নি মর্মে তিনি সভাকে অবহিত করেন। পাচারের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতারপূর্বক পাচার হওয়া মালামাল উদ্ধারের জন্য বিজিবি বাহিনীকে অনুরোধ করেন। ভারত থেকে নিম্নমানের সার পাচার হয়ে আসছে বলে সভায় তিনি জানান, যা ফসলের ক্ষতিকর। এ বিষয়ে পুলিশ ও বিজিবি বাহিনীকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য আহবান জানান।

মাছ পাচার প্রতিরোধের বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য বিজিবি বাহিনীকে অনুরোধ করেন। কাজীয়াতলার আঃ রহিমকে গ্রেফতারের জন্য সভায় গোসাইস্থল বিওপি প্রধানকে বলা হয়। হিল্টন নামক স্বাস্থ্যের ক্ষতিকর ঔষধ  আমদানী বন্ধের জন্য বিজিবি বাহিনী ও পুলিশবাহিনীকে সভায় বলা হয়। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার অনুপস্থিতিতে ওসি তদন্ত প্রয়োজনীয় তথ্যসহ সভায় উপস্থিত না থাকায় অসন্তোষ প্রকাশ করা হয় এবং পত্র লেখার বিষয়ে সভায়  আলোচনা করা হয়।

 

০৩। সার ও ডিজেল পাচার রোধকরণ

সভায় ডিজেল এবং সারের বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

উপজেলায় যাতে ডিজেল ও সার পাচার না হয় এই বিষয়ে বিজিবি ও পুলিশের সাথে সীমান্তবর্তী ইউপি চেয়ারম্যানগণকে তৎপর থাকার জন্য অনুরোধ করা হয়।

সার ও ডিজেল যাতে সীমান্তের ওপারে পাচার হতে না পারে সে জন্য কঠোর নজরদারী করতে হবে।

 

 ১। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার,কসবা,চন্ডীদ্বার,মইনপুর,মাদলা,

গোসাইস্থল

২। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা,

কসবা থানা।

৩। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে কোন সংশোধন না থাকায় সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান অনেকটা হ্রাস পেয়েছে । তবে চোরাপথে এদেশ হতে মাছ ও ঔষুধ চোরাচালান হয়ে থাকে বলে সভাকে জানান ।এ বিষয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

২।         অতঃপর আলোচ্যসূচী মোতাবেক চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), বিজয়নগর উপজেলার সীমান্তবর্তী ইউনিয়নের উপস্থিত ক্যাম্প কমান্ডারগণ কর্তৃক দাখিলকৃত তাদের কার্যক্রম সম্পকে নিম্নবর্ণিত ছক মোতাবেক প্রতিবেদনের উপর আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

             বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জদ্বকৃত তালিকার বিবরণ (জানুয়ারী/১৩)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অর্ন্তমুর্খী মূল্য

ধৃত আসামী

মোট মূল্য

অভিযানের সংখ্যা

 

 

 

 

 

 

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩২ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮৫ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৮ কেজি

ভারতীয় গুড়া গাজা-১ কেজি

--

---

৩,২১,৮০০/-

৯টি

সিংগারবিল

ভারতীয় হুইস্কি ৫৬ বোঃ,

ভারতীয় কেস্টল প্রাইড হুইস্কি ০৩ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল ১৫ বোঃ

ভারতীয় অক্সিসার চয়েচ হুইস্কি- ১২০ বোঃ,

বাংলাদেশী পুটি মাছ ০৭কেজি

বাংলাদেশী কার্পু মাছ ২৫কেজি

বাংলাদেশী টেংরা মাছ ০৭কেজি

ভারতীয় জট গাজা-১২ কেজি

ভারতীয় আইকন-১৬ বোঃ

ভারতীয় মাস্টার বিয়ার-১৪ বোঃ

ভারতীয় হিউম্যান বিয়ার-০৩ বোঃ

--

--

৩,৫৫,৮৫০/-

১০টি

 

মুকুন্দপুর

বাইসাইকেল-০১টি

হিমেল বি আর হুইস্কি-৪৬ বোঃ

ভারতীয় ব্যাগপাইপার ৩৪ বোঃ

আরতীয় আইকন-৩১ বোঃ

ভারতীয় পাতার বিড়ি ৮৪০ পেকেট

বাংলাদেশী হাসের ডিম- ২৪০টি

 

 

১,৬৪,৩০০/-

২৮টি

লক্ষ্মিপুর

ভারতীয় পাতার বিড়ি-৮৩২ পেকেট

--

 

৬৬,৫০০/-

৯০

 

বিষ্ণপুর

 

ভারতীয় গড ফাদার-২০ বোঃ

ভারতীয় এমসি ডুয়েলস-৩৭ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল-৯২ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-০৮ কেজি

ভারতীয় অফিসার চয়েস-২৩ বোঃ

ভারতীয় ব্যাগ পাইপার-২৫বোঃ

ভারতীয় কোরেষ্ট-৯৮ বোঃ

ভারতীয় পাতার বিড়ি-২০০ বোঃ

বাংরাদেশী টেংরা মাছ- ১২ কেজি

 

---/-

 

 

২,৮৭,৪০০/-

 

৯৩

 

            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডারদের প্রতিবেদন উপর আলোকপাত করে সভাকে জানান যে, চোরাচালান মালামাল  ধরে মূল্য নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু পাচারকারীকে আটক করা হয়নি। মালামাল আটককালে ২/৩ টা আসামী ধরতে হবে। প্রয়োজন বোধে মোবাইল কোর্ট মাধ্যমে মালামালসহ আসামী আটক বিষয়ে বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডারগনকে পরামর্শ প্রদান করেন।

 

সিদ্ধান্তঃ চোরাচালান প্রতিরোধ অভিযানে মালামাল আটককালে আসামী আটক করার বিষয়ের  বিজিবি ক্যাম্প এর সকল কোম্পানী কমান্ডারগণকে অনুরোধ জানানো হয়।

বিজয়নগর থানাঃ

 

            সভায় উপস্থিত অফিসার-ইন-চার্জ, বিজয়নগর থানা সভাকে জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে থানার কার্যক্রম সর্বদা অব্যাহত রয়েছে। চোরাচালান অভিযানে মালামালসহ আসামী আটক করা হয়ে থাকে। থানার সর্বদা তৎপরতা অব্যাহত আছে বলে জানান।

 

সিদ্ধান্তঃ চোরাচালান পন্য সামগ্রী বিজয়নগর হতে পরিবহনকালে তাহার বিরুদ্ধে পুলিশী কার্যক্রম অব্যাহত রাখার  সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

 

সভায় উপস্থিত কমান্ডার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, বিজয়নগর সভাকে জানান যে, আউলিয়া বাজারে দেশীমাছ সহ বিভিন্ন জায়গা হতে প্রচুর মাছ বাজারে আমদানী করা হয়। তাছাড়া কয়েকজন লাইসেন্সধারী মাছ ব্যবসায়ী অন্য স্থান হতে বাজারে মাছ বিক্রয়ের জন্য বাজারে আনা হয়। তিনি অভিযোগ করেন, যে পরিমান মাছ বাজারে উঠানো হয় সে পরিমান ক্রেতা বাজারে সমাগম না ঘটলেও মাছ বাজার হতে চোরাপথে অন্যত্র মাছ পাচার হচ্ছে। যাদের  প্রয়োজন ১/২ কেজি তারা ও বাজার হতে মাছ প্রয়োজনের অতিরিক্ত  ক্রয় করে অন্য স্থানে  একত্রে করে সীমান্ত পথে পাচার  কাজে সহযোগিতা করছেন । উপস্থিত মুকুন্দপুর বিওপি’র বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার বাজার হতে মাছ পাচার বিষয়টি সত্য বলে জানান। ক্যাম্প কমান্ডার সভাকে জানান যে, বাজার হতে ৫ কেজি, ২ কেজি করে মাছ ক্রয় করে ক্রেতাগণ তাদের বাড়ীতে নিয়ে একত্রে করে তাহা পাচার কাজে সহযোগিতা করে থাকেন। যারা পাচার কাজে জড়িত বাজার কমিটির মাধ্যমে তাদের তালিকা তৈরী করা হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা সুবিধাজনক হবে বলে জানান।

সিদ্ধান্তঃ আউলিয়া বাজার হতে প্রয়োজনের  অতিরিক্ত মাছ ক্রয় করে যারা পাচার কাজে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় ।

 

            চোরাচালান প্রতিরোধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সভাকে জানান যে, সীমান্তবর্তী ইউপি চেয়ারম্যানগন প্রতিরোধে বিজিবি  সদস্যদের আমন্ত্রন পত্র দিয়ে চোরাচালান সভা অনুষ্ঠান করা এবং সভার কার্যবিবরণী অত্রাফিসে প্রেরণ করার জন্য সংশি­ষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগনকে অনুরোধ জানান। প্রয়োজনবোধে স্থানীয় অন্যান্য গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের প্রতিনিধিদের নিয়ে সার্বিক সমন্বয়ের মাধ্যমে সভা অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাদি গ্রহণের বিষয়ে ও সভাপতি  সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানগনকে অনুরোধ জানান।

হয় ।

 

            পরিশেষে সভাপতি সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন ।

 

 

ড. আশরাফুল আলম

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১২-৯১                                                 তারিখঃ ৩০/০১/২০১৩খ্রিঃ

অনুলিপিঃ

১। জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ( সদয় অবগতির জন্য)।

২। অধিনায়ক, ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

৩। পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

৪। অফিসার-ইন-চার্জ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

৫। চেয়ারম্যান,------------------------------ ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

ড. আশরাফুল আলম

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 


গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির  ফেব্রম্নয়ারী’২০১৩  মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতিঃ   জনাব জালাল সাইফুর রহমান

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃউপজেলাপরিষদ মিলানায়তন, কসবা।

 

তারিখঃ ৯/২/২০১৩ খ্রিঃ ।                                                   সময়ঃ দুপুর১২.৩০ঘটিকা

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশিষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

সভার প্রারম্ভে সভাপতি উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভার কাজ শুরু করেন। অতঃপর বিগত সভার কার্যবিবরণী পাঠ করে শোনানো হলে কোন আপত্তি না থাকায় তা সর্বসম্মতিক্রমে  অনুমোদিত হয়।

 

অতঃপর সভায় নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃপক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জানুয়ারী-১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির কাইমপুর,  বায়েক ও গোপীনাথপুর ইউপির সভার কার্যবিবরণী পাওয়া গেছে।

 যথাসময়ে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভার কার্যবিবরণী প্রেরণ করায় সভায় ধন্যবাদ জানানোর সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

গোপীনাথপুর, বায়েক ও কায়েমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

কসবা উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধ বিষয়ে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

নেপাল চন্দ্র সাহাঃ  চোরাচালান বন্ধে উপজেলা প্রশাসন ,বিজিবি ও কসবা থানার সহযোগিতা কামনা করে একযোগে কাজ করার জন্য পুনরায়  আহবান জানান।

চেয়ারম্যান, কায়েমপুর ইউপিঃতার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটমোটি সমেত্মাষজনক। চোরাচালান নিয়ন্ত্রণে সকলে আমত্মরিকভাবে কাজ করার আহবান জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে সংশিস্নষ্ট সকলকে আরো তৎপর হওয়ার জন্য সভায় অনুরোধ করেন।

কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা সংসদঃকসবা থানা কর্তৃক চোরাচালনের উপর অভিযান পরিচলনা করায় কিছুটা লাঘব হয়েছে। পুলিশের পাশাপাশি বিজিবিকে অভিযান পরিচালনা অনুরোধ জানান।

কসবা কোম্পানী কমান্ডারঃচোরাচালান কমে আসছে বলে সভায় জানান। এ মাসে আসামী বিহীন মামলা হয়েছে ১৪টি। ফেন্সিডিল এবং রিকোডেক্স সিরাপসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য ভারত থেকে  পাচার হয়ে আসছে বলে  সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

কসবা থানা প্রতিনিধি,ঃ জানুয়ারী  মাসে উদ্ধারকৃত মাদক দ্রব্যের মুল্যের পরিমান ১,২৪,৪০০/- টাকা এবং পরিত্যক্ত অবস্থায় ৩৬৫ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়। মাদক পাচারের সাথে জড়িত ২০ জন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়।

জনাব মোঃ রহুল আমিন ভূঞা বকুল, চেয়ারম্যান, কসবা উপজেলা পরিষদঃসভায় বলেন চোরাচালান প্রতিরোধে  বিজিবি ও পুলিশ বাহিনী আমত্মরিকতার সাথে কাজ করলে চোরাচালান প্রতিরোধ করা সম্ভব। চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি বর্গের সহযোগিতা নেয়ার জন্য বর্ডার গার্ডের প্রতি আহবান জানান এবং বর্ডারগার্ড’কে সহযোগিতা করার অনুরোধ করেন।

সভাপতিঃঃউপজেলায় চোরাচালান ও মাদক কেনাবেচা প্রতিরোধে সবাই’কে আমত্মরিকভাবে কাজ করতে হবে। বহ্যিকভাবে কমেছে মর্মে প্রতীয়মান হলেও বাসত্মবতা ভিন্ন। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে আরো সক্রিয় হতে হবে।

১.চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরতাসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশি­ষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.প্রকৃত চোরাচালানের  সাথে জড়িত ব্যক্তিদের আইনের আওতায় এনে গ্রেফতারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

৩.   চোরাচালান প্রতিরোধে বিজিবি এবং পুলিশ বাহিনীকে অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রাখার জন্য সভায় সিদ্ধামত্ম গৃহীত হয়।

 

 

 

১. উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২. মেয়র, কসবা পৌরসভা

৩.অফিসার ইনচার্জ,

কসবা থানা

৪.কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার,কসবা,চন্ডীদ্বার

মইনপুর,মাদলা,

গোসাইস্থল ও কাজীয়াতলা ।

৫. সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

০৩। সার ও ডিজেল পাচার রোধকরণ

সভায় ডিজেল এবং সারের বিষয়ে আলোচনা করা হয়।উপজেলায় যাতে ডিজেল ও সার পাচার না হয় এই বিষয়ে বিজিবি ও পুলিশের সাথে সীমান্তবর্তী ইউপি চেয়ারম্যানগণকে তৎপর থাকার জন্য অনুরোধ করা হয়।

সার ও ডিজেল যাতে সীমান্তের ওপারে পাচার হতে না পারে সে জন্য কঠোর নজরদারী করতে হবে।

 

১. মেয়র, কসবা পৌরসভা।

২. কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার,কসবা,চন্ডীদ্বার,মইনপুর,মাদলা,

গোসাইস্থল ও কাজীয়াতলা।

৩.অফিসার ইনচার্জ,

কসবা থানা।

৪. সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

 

 

 

 

 

 

 বি জি বি এর ডিসেম্বর /১২  মাসের চোরাচালান বিরোধী অভিযানের প্রতিবেদনঃ-

ক্রঃ নং

বিওপি/থানার নাম

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য

মোট মূল্য

           মামলার বিবরণ

অন্তর্মুখী

বহির্মুখী

আসামীসহ মামলার সংখ্যা

আসামীবিহীন মামলার সংখ্যা

 মোট মামলার  সংখ্যা

 

 

কসবা কোঃসদর

১,৩৩,৩০০/-

-

১৩৩,৩০০/-

-

২টি

২টি

চন্ডিদ্বার বি ও পি

৪৪,৫০০/-/-

-

৪৪,৫০০/-

-

৫টি

৫টি

মইনপুর  বিওপি

৫,১০,০০০/-

-

৫,১০,০০০/-

 

৬টি

৬টি

মাদলা  বিওপি

২১০০০/-

-

২১০০০/-

-

১টি

১টি

গোসাইস্থল

-

-

৯,১১,৭০৫/-

-

 

 

 

মোট

৭,৮৮০০০/

 

১৬,২০,৫০৫/-

 

১৪টি

১৪টি

 

 

উদ্ধারকৃত মালামালঃ  গাঁজা, ব্যাগ পাইপার,  ফেন্সিডিল, হুইস্কি, সিডি, চোলাই মদ,  , বাংলাদেশী রসুন, বাংলাদেশী ছাগল, ভেড়া, হাস, সাইকেল ইত্যাদি।

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান এবং  ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

 

         (জালাল সাইফুর রহমান)

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান নিরোধ কমিটি

  উপজেলা নির্বাহী অফিসার

কসবা,  ব্রাক্ষণবাড়িয়া

e-mail: unokasba@mopa.gov.

 

স্মারক নং০০.০০.০২০২.৫৬৩.০৬.০০৩.১২. (২০)             তারিখঃ/০২/২০১৩ খ্রিঃ ।

 

অনুলিপি সদয় অবগতি/ কার্যার্থেঃ-

 

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, কসবা- আখাউড়া,ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০৪  ও সভাপতি, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত

     সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।       

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২ ও ৩৩ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, সরাইল/ কুমিল­া

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. চেয়ারম্যান, উপজেলা পরিষদ,কসবা,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬. মেয়র, কসবা পৌর সভা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. উপজেলা ভাইস -চেয়ারম্যান/মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, কসবা উপজেলা পরিষদ,কসবা।

০৯. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর,ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

১০. উপজেলা........................................................অফিসার, কসবা।

১১.চেয়ারম্যান, বায়েক/কাইমপুর/গোপীনাথপুর/ ইউনিয়ন পরিষদ,কসবা।

১২.কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, কসবা।

১৩.জনাব...........................................................

                                                                                                                         উপজেলা নির্বাহী অফিসার

                            কসবা,  ব্রাক্ষণবাড়িয়া।


উপজেলা  সভার নোটিশ জারীর এস আর

 

ক্রমিক নং

বিবরণ

মোবাইল নম্বর

স্বাক্ষর

  1.  

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

 

 

  1.  

সহকারী কমিশনার(ভূমি)

 

 

  1.  

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা

 

 

  1.  

উপজেলা কৃষি অফিসার

 

 

  1.  

অফিসার ইন-চার্জ, বিজয়নগর থানা

 

 

  1.  

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা

 

 

  1.  

উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা

 

 

  1.  

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা

 

 

  1.  

উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা

 

 

  1.  

উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, বুধন্তী ইউপি

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, চান্দুরা ইউপি

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, ইছাপুরা (উঃ) ইউপি

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, চম্পকনগর ইউপি

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, হরষপুর ইউপি

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি

 

 

  1.  

চেয়ারম্যান, ইসলামপুর ইউপি

 

 

  1.  

সভাপতি, প্রেস ক্লাব

 

 

  1.  

কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর

 

 

  1.  

বিওপি কমান্ডার, আলীনগর ক্যাম্প

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির  ফেব্রুয়ারী ’২০১৩  মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ ড.আশরাফুল আলম

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৭/০২/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান অনেকটা হ্রাস পেয়েছে। তবে চোরাপথে এদেশ হতে মাছ ও ঔষুধ চোরাচালান হয়ে থাকে বলে সভাকে জানান । এ বিষয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য ফেব্রুয়ারী ২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত জানুয়ারী ২০১৩খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  জানুয়ারী/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায়নি।  সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে   অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন সমূহে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির  নিয়মিত সভা করে যথাসময়ে কার্যবিবরণী প্রেরণ করার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেননিয়মিত চোরাচালান অভিযান পরিচালনা করতে হবে এবং মালামালের সাথে আসামী ধরতে হবে।

চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি  সভায় বলেনমুকুন্দপুর এলাকার  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশ্লিষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

সভায় বলেন সে চোরাচালান অব্যাহত আছে। তা প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার সকলস্তরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ওবিজিবির প্রতি আহবান জানান।

আলীনগর বিওপিসভায় জানান  চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমান্ত এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

 

সভায় মুকুন্দপুর  কোম্পানী কমান্ডার জানান যে,চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে বিজিবি বাহিনী সর্বদা তৎপর রয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেন । এমাসে আসামী বিহীন মামলা হয়েছে ১০টি। ফেন্সিডিল  এবং রিকোডেক্স সিরাপসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য ভারত থেকে পাচার হয়ে আসছে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান সিংগারবিল সভায় জানান যে, সীমান্ত  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধের মতামত ব্যক্ত করেন। চোরাচালান প্রতিরোধে সচেতনামূলক লিফলেট প্রচার করার জন্য প্রস্তাব করেন।

 

অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান পাচারের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের নামের তালিকা দাখিল করলে গ্রেফতারপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালানের মালামাল উদ্ধারের সাথে সাথে চোরাচালানকারীদেরকেও ধরতে হবে। চোরাচালান নিরোধ করার কাজে সকলে মিলে মিশে আন্তরিকতার সাথে কাজ করতে হবে। আসামীসহ মালামাল আটক কারার জন্য  বিওপি প্রধানকে অনুরোধ জানান হয়। পুলিশ ও বিজিবিকে  চোরাচালান প্রতিরোধে পারস্পরিক সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে কাজ করার আহবান জানান হয়।

১.চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপরসহ চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.অভিযান পরিচালনা কালে আসামী ধরার বিষয়ে আরোও তৎপর হতে হবে।

৩.অবৈধ সীমান্ত অতিক্রমের  প্রবণতা নিরুৎসাহিত করার লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের  সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

৪. চোরাচালান প্রতিরোধে জনসচেতন বৃদ্ধির লক্ষ্যে লিফলেট প্রচার করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার,মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত জানুয়ারী/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 বি জি বি এর জানুয়ারী /১৩  মাসের চোরাচালান বিরোধী অভিযানের প্রতিবেদনঃ-

ক্রমিক নং

বিওপি/থানার নাম

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য

মোট মূল্য

           মামলার বিবরণ

অন্তর্মুখী

বহির্মুখী

আসামীসহ মামলার সংখ্যা

আসামীবিহীন মামলার সংখ্যা

 মোট মামলার  সংখ্যা

 

 

লক্ষীপুর বি ও পি

২০,৮০০/-

--

২০,৮০০/-

 

০১

০১

মুকুন্দপুর বি ও পি

১,৬১,৯০০/-

২,৪০০/-

১,৬৪,৩০০/-

 

০৮

০৮

বিষ্ণপুর  বিওপি

১,০০,২২০/-

৭,৫০০/-

১,০৭,৭২০/-

০৯

১০

আলীনগর  বিওপি

৩,২১,৮০০/-

--

৩,২১,৮০০/-

০৮

০৯

সিংগারবিল বিওপি

৩,৪৮,৪০০/-

৭,৪৫০/-

৩,৫৫,৮৫০/-

--

১১

১১

 

      মোট

৯,৫৩,১২০/-       

১৭,৩৫০/

৯,৭০,৪৭০/-

০২

৩৭

৩৯

 

      

 

উদ্ধারকৃত মালামাল গুলো হল, পাতার বিড়ি, ব্যাগপাইপার, হিমেন হুইস্কি, আইকন হুইস্কি, বাইসাইকেল, রিকোডেক্স, জটগাজা,  ফেন্সিডিল, বাংলাদেশী ঔষুধ, হাসেঁর ডিম, চোলাই মদ, বাংলাদেশী মাছ  ইত্যাদি।

 

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং  ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

     

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ ০৪/০৩ /২০১৩খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২ বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব...................................................................., বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দ (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে)ঃ

ক্রমিক নং                      নাম                                                                   পদবী

০১. জনাব ড.আশরাফুল আলম                                    উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোঃ রসুল নিজামী                                     অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব মোঃ আল মামুন                                       চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                                  চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                     চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬.জনাব নায়েব সুবেদার আবু তাহের                            কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. জনাব মোঃ মাসুক মিয়া                                       আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির  মার্চ/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ ড. আশরাফুল আলম

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৮/০৩/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য মার্চ/২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত ফেব্রুয়ারী/২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  ফেব্রুয়ারী/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন সমূহে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির  নিয়মিত সভা করে যথাসময়ে কার্যবিবরণী প্রেরণ করার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য ফেব্রুয়ারী ২০১৩ মাসে ৩৯১ অভিযানের মাধ্যমে ১৪,৬৮,৭১০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৫২টি মামলা সংশ্লিষ্ট ০৮ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নে দায়িত্বগ্রহণের পর থেকে চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপরতা বাড়ানো হয়েছে। আউলিয়া বাজার এলাকাকে মাদক মুক্ত করার জন্য সকলকে নিয়ে সভা করা হয়েছে। চোরাচালান প্রতিরোধে পুলিশ বিভাগসহ সহ সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয় ।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন

 যারা চোরাচালান করে তাদেরকে বয়কট করতে হবে এবং যারা প্রকৃতদোষী তাদের বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

 

চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি  সভায় বলেনঅত্র উপজেলার বিভিন্ন এলাকায়  চোরাচালানে নিয়োজিত বিভিন্ন স্পটে অভিযান পরিচালনার জন্য সংশ্লিষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানের প্রতি আহবান জানান।

 

আলীনগর বিওপিসভায় জানান  চোরাচালান প্রতিরোধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও সীমান্ত এলাকার জনগণের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন। সীমান্ত এলাকায় সাধারণ জনগণ সাবধানতার সাথে গরু পালন করার জন্য অনুরোধ জানান।

 

উপজেলা  কমান্ড, বিজয়নগর সভায় জানান যে, বিজয়নগর উপজেলার মধ্যে আউলিয়া বাজারে সবচেয়ে বেশি মাছ কেনাবেচা হয়। মাছ পাশ্ববর্তী দেশে যেন পাচার না হয় সে বিষয়ে সকলকে দৃষ্টি রাখতে হবে।

 

অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান অনেক হ্রাস পেয়েছে এই অবস্থাকে ধরে রাখতে হবে এবং চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার সকলস্তরের জনসাধারণের সার্বিক সহযোগিতা নিয়ে কাজ করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ওবিজিবির প্রতি তিনি আহবান জানান। ফেব্রুয়ারী/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে ফেনসিডিল ২৭ বোতল, বিয়ার ৪ বোতল, হুইস্কি ৪ বোতল, মদ ২ বোতল, ইয়াবা ট্যাবলেট ১০০পিছ মালামাল উদ্ধার করা হয়। ০৫টি মামলায় ০৫জন আসামী গ্রেফতার করা হয়।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে আরও গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত চোরাচালান প্রতিরোধে পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা বৃদ্ধি ও আরও কার্যকর করার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সকল সদস্যকে অনুরোধ করা হয়।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি ও কার্যকর করতে হবে।

৩. চোরাচালান প্রতিরোধে জনসচেতন বৃদ্ধির লক্ষ্যে লিফলেট প্রচার করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

 

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত ফেব্রুয়ারী/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 বি জি বি এর ফেব্রুয়ারী /১৩  মাসের চোরাচালান বিরোধী অভিযানের প্রতিবেদনঃ-

ক্রমিক নং

বিওপি/থানার নাম

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য

মোট মূল্য

           মামলার বিবরণ

অন্তর্মুখী

বহির্মুখী

আসামীসহ মামলার সংখ্যা

আসামীবিহীন মামলার সংখ্যা

 মোট মামলার  সংখ্যা

 

 

লক্ষীপুর বি ও পি

৪৬,৫১০/-

--

৪৬,৫১০/-

 

০১

০১

মুকুন্দপুর বি ও পি

১,১৪,০০০/-

--

১,১৪,০০০/-

 

০৩

০৩

বিষ্ণপুর  বিওপি

৩,২৬,৫০০/-

৯,৭০০/-

৩,৩৬,২০০/-

-

০৯

০৯

আলীনগর  বিওপি

৫,২২,৮০০/-

--

৫,২২,৮০০/-

১৪

১৬

সিংগারবিল বিওপি

৩,৪৯,২০০/-

--

৩,৪৯,২০০/-

১৭

১৮

 

      মোট

১৩,৫৯,০১০/-       

৯,৭০০/-

১৩,৬৮,৭১০/-

০৩

৪৪

৪৭

 

      

উদ্ধারকৃত মালামাল গুলো হল, পাতার বিড়ি, ব্যাগপাইপার, হিমেন হুইস্কি, আইকন হুইস্কি, বাইসাইকেল, রিকোডেক্স, জটগাজা,  ফেন্সিডিল, বাংলাদেশী ঔষুধ, হাসেঁর ডিম, চোলাই মদ, বাংলাদেশী মাছ  ইত্যাদি।

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

     

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ ৩১/০৩/২০১৩খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২ বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব...................................................................., বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. অফিস কপি ।

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                      নাম                                                                   পদবী

 

০১. জনাব ড.আশরাফুল আলম                                    উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোঃ রসুল নিজামী                                     অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব মোঃ আল মামুন                                       চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                                  চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                     চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬.জনাব এ ব্যানাজী                                               কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. জনাব মোঃ মাসুদ মিয়া                                       আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৮. জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                                    উপজেলা আনসার ও ভি ডি পি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৯. জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                               উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 


বিজয়নগর উপজেলা  চোরাচালান নিরোধ কমিটির এপ্রিল/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ ড. আশরাফুল আলম

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৯/০৪/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য এপ্রিল/২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত মার্চ/২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে  ফেব্রুয়ারী/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর, পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন সমূহে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির  নিয়মিত সভা করে যথাসময়ে কার্যবিবরণী প্রেরণ করার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য মার্চ ২০১৩ মাসে ৩৯৯টি অভিযানের মাধ্যমে ১৩,৬৮,৭১০/-টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৩১টি মামলা সংশ্লিষ্ট ০৬ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের সকল সদস্য চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপরতা রয়েছে।

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন চোরাচালান বিরোধী অভিযান পরিচালনার ক্ষেত্রে আটককৃত পণ্যের সাথে আসামীকে আটক করার জন্য অনুরোধ করেন।

 

চেয়ারম্যান, পত্তন ইউপি  সভায় বলেনঅত্র চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি বর্গের সহযোগিতা নেয়ার জন্য বর্ডার গার্ডের প্রতি আহবান জানান এবং বর্ডারগার্ডকে সহযোগিতা করার অনুরোধ করেন।

 

আলীনগর বিওপিসভায় জানান তার এলাকায় চোরাচালান পরিস্থিতি মোটমোটি সন্তোষজনক। 

উপজেলা  কমান্ড, বিজয়নগর সভায় জানান যে, বিজিবি বাহিনী ও পুলিশ বাহিনীকে প্রকৃত  চোরাকারবারী ও মাদকসেবীদেরকে গ্রেফতারের আহবান জানান।

অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে থানার কার্যক্রম সর্বদা অব্যাহত রয়েছে। চোরাচালান অভিযানে মালামালসহ আসামী আটক করা হয়ে থাকে। থানার সর্বদা তৎপরতা অব্যাহত আছে বলে জানান।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি বর্গের সহযোগিতা নেয়ার জন্য বর্ডার গার্ডের প্রতি আহবান জানান এবং বর্ডারগার্ডকে সহযোগিতা করার অনুরোধ করেন। বিজিবি বাহিনী ও পুলিশ বাহিনীকে প্রকৃত  চোরাকারবারী ও মাদকসেবীদেরকে গ্রেফতারের আহবান জানান। উপজেলায় চোরাচালান ও মাদক কেনাবেচা প্রতিরোধে সবাই’কে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি ও কার্যকর করতে হবে।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত মার্চ/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 বি জি বি এর মার্চ /১৩  মাসের চোরাচালান বিরোধী অভিযানের প্রতিবেদনঃ-

ক্রমিক নং

বিওপি/থানার নাম

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য

মোট মূল্য

           মামলার বিবরণ

অন্তর্মুখী

বহির্মুখী

আসামীসহ মামলার সংখ্যা

আসামীবিহীন মামলার সংখ্যা

 মোট মামলার  সংখ্যা

 

 

লক্ষীপুর বি ও পি

২,৪৪,৬০০/-

--

২,৪৪,৬০০/-

 

০৪

০৪

মুকুন্দপুর বি ও পি

১,৭১, ৯৪০/-

৪,৫৫০/-

১,৭৬,৪৯০/-

 

০৫

০৫

বিষ্ণপুর  বিওপি

১৪,৯৮,৫০০/-

১২,৮২৫/-

১৫,১১,৩২৫/-

০৩

০৮

১১

আলীনগর  বিওপি

৩৪,৮৯,৭১০/-

২৭৬০/-

৩৪,৯২,৪৭০/-

০৩

১৬

১৯

সিংগারবিল বিওপি

১১,৩৩,২৫০/-

৩,৬০০/-

১১,৩৬,৮৫০/-

০১

১৭

১৮

 

      মোট

৬৫,৩৮,০০০/-       

 ২৩,৭৩৫/-

৬৫,৬১,৭৩৫/-

০৭

৫০

৫৭

 

      

উদ্ধারকৃত মালামাল গুলো হল, পাতার বিড়ি, ব্যাগপাইপার, হিমেন হুইস্কি, আইকন হুইস্কি, বাইসাইকেল, রিকোডেক্স, জটগাজা,  ফেন্সিডিল, বাংলাদেশী ঔষুধ, হাসেঁর ডিম, চোলাই মদ, বাংলাদেশী মাছ  ইত্যাদি।

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

     

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ ২৯/০৪/২০১৩খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২ বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব...................................................................., বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                      নাম                                                                   পদবী

০১. জনাব ড.আশরাফুল আলম                                    উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোঃ রসুল নিজামী                                     অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব মোঃ আল মামুন                                       চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                                  চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                     চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬.জনাব এ ব্যানাজী                                               কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. জনাব মোঃ মাসুদ মিয়া                                       আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৮. জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                                    উপজেলা আনসার ও ভি ডি পি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৯. জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                               উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

১০. জনাব মোঃ দবির আহম্মেদ                                   উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার(ভারপ্রাপ্ত),বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া      

 

 

 

 

বিজয়নগর উপজেলা চোরাচালান নিরোধ কমিটির মে/ ২০১৩ মাসের সভার কার্যবিবরণীঃ

 

সভাপতি  ঃ ড. আশরাফুল আলম

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৯/০৫/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১০.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে আর কোন সংশোধন/সংযোজন/বিয়োজন না থাকায় ও যথাযথভাবে লিখিত হয়েছে মর্মে সকলে একমত পোষণ করায় সর্বসম্মতিক্রমে তা অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

অতঃপর সভায় আলোচ্যসূচী অনুযায়ী চোরাচালান প্রতিরোধকল্পে সম্পাদিত বিভিন্ন কর্মকান্ডের বিবেচ্য মে/২০১৩ খ্রিঃ ও বিগত এপ্রিল/২০১৩ খ্রিঃ মাসের তুলনামূলক তথ্যাদি পর্যালোচনাক্রমে নিম্নবর্ণিত বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

 

ক্রমিক নং ও বিষয়

আলোচনা

সিদ্ধান্ত

বাস্তবায়নকারী কর্তৃ পক্ষ

০১

চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা সংক্রান্ত

সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ থেকে এপ্রিল/১৩ মাসের মাসিক চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির বিষ্ণপুর,পাহাড়পুর, সিংগারবিল ইউপির সভার কার্যবিবরনী পাওয়া যায় নাই। সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান রোধকল্পে নিয়মিত ইউনিয়ন চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির সভা প্রতিমাসে করে সভার কার্যবিবরণী যথাসময়ে প্রেরণ নিশ্চিত করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগণকে অনুরোধ করা হয়। 

 সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন সমূহে চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটির  নিয়মিত সভা করে যথাসময়ে কার্যবিবরণী প্রেরণ করার জন্য সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সীমান্তবর্তী  ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গণ।

০২

চোরাচালান পরিস্থিতি সংক্রান্ত

সভায় অত্র উপজেলাধীন চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশ্লিষ্ট সংস্থাসমূহ থেকে প্রাপ্ত বিবরণী পর্যালোচনায় দেখা যায় যে, বিবেচ্য এপ্রিল ২০১৩ মাসে ৩৯৯ টি অভিযানের মাধ্যমে ৮৮,৮২,২৮৫/- টাকার পণ্য আটক/উদ্ধারসহ ৩১টি মামলা সংশ্লিষ্ট ০৬ জনকে আটক করা হয়েছে। চোরাচালান বিরোধী কার্যক্রমকে গতিশীল করার স্বার্থে অভিযান পরিচালনার সংখ্যা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে নিদের্শনা প্রদান করা হয়।

 

বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান প্রতিরোধে বক্তব্য প্রদানের জন্য উপস্থিত সদস্যদেরকে অনুরোধ জানানো হয়।

 

কোম্পানী কমান্ডার মুকুন্দপুর  জানান যে, আমাদের দেশ থেকে ভাল জিনিস চলে যায় এবং ভারত থেকে খারাপ জিনিস চলে আসছে। বর্তমানে সীমান্তবর্তী এলাকায় চোরাচালান আগের চেয়ে অনেক কমে গেছে। মুকুন্দপুর ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের সকল সদস্য চোরাচালান নিরোধের বিষয়ে তৎপরতা রয়েছে।

 

চেয়ারম্যান বিষ্ণপুর ইউপি সভায় বলেন রাত্রের বেলায় কাঠাঁল পাচার কালে তল্লাশী করার জন্য অনুরোধ করেন।

 

 

আলীনগর বিওপিসভায় জানান চোরাচালান কমে আসছে বলে সভায় জানান। এ মাসে আসামীসহ মামলা হয়েছে ১৫টি। ফেন্সিডিল এবং রিকোডেক্স সিরাপসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য ভারত থেকে  পাচার হয়ে আসছে বলে সভায় জানান। চোরাচালান প্রতিরোধে টহল কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে সভায় জানান।

 

চেয়ারম্যান পাহাড়পুর ইউপি সভায় বলেন আউলিয়া বাজারের পশ্চিম পাশে বস্তিতে চোরা চালান অভিযান পরিচালনা করার জন্য অনুরোধ করেন।

 

অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর থানা সভায় জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে থানার কার্যক্রম সর্বদা অব্যাহত রয়েছে। চোরাচালান অভিযানে এ মাসে ১০ জন আসামীসহ ১৪ টি মামলা রুজু করা হয়।

 

সভাপতি জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার টাস্কর্ফোস গঠন করে অভিযান পরিচালনা করা হবে। বিজিবি বাহিনী ও পুলিশ বাহিনীর চোরাচালান প্রতিরোধে সমন্বয় রেখে কাজ করার জন্য আহবান জানান। উপজেলায় চোরাচালান ও মাদক কেনাবেচা প্রতিরোধে সবাই’কে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে।

১. চোরাচালান নিরোধে আরো তৎপর এবং চলমান টহল কার্যক্রম অব্যাহত রাখার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ জানানো হয়।

২.চোরাচালান প্রতিরোধ কার্যক্রমকে গতিশীল ও বেগবান করার নিমিত্ত পরিচালিত সকল ধরনের অভিযানের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি ও কার্যকর করতে হবে।

 

১। উপজেলা নির্বাহী অফিসার

২। অফিসার ইন-র্চাজ

বিজয়নগর থানা

৩। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার, মুকুন্দপুর ও আলীনগর

৪। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতিঃ

আলোচনাঃ

সভায় কোম্পানী অধিনায়ক, কোম্পানী মুকুন্দপুর এবং বিওপি কমান্ডার, আলীনগর বিওপি কতৃর্ক দাখিলকৃত এপ্রিল/ ২০১৩ মাসের চোরাচালান নিরোধ অভিযান কালে উদ্ধারকৃত মালামাল ও মামলা পরিস্থিতির  বিবরণী উপস্থাপন করা হয়।

 বি জি বি এর এপ্রিল /১৩  মাসের চোরাচালান বিরোধী অভিযানের প্রতিবেদনঃ-

ক্রমিক নং

বিওপি/থানার নাম

উদ্ধারকৃত মালামালের মূল্য

মোট মূল্য

           মামলার বিবরণ

অন্তর্মুখী

বহির্মুখী

আসামীসহ মামলার সংখ্যা

আসামীবিহীন মামলার সংখ্যা

 মোট মামলার  সংখ্যা

 

 

লক্ষীপুর বি ও পি

৩০,০০০/-

--

৩০,০০০/-

--

০১

০১

মুকুন্দপুর বি ও পি

১,২৬,৬৫০/-

২,৫৯০/-

১,২৯,২৪০/-

০২

০৭

০৯

বিষ্ণপুর  বিওপি

২,৬১,০০০/-

৭,৪৯৫/-

২,৬৮,৪৯৫/-

--

০৬

০৬

আলীনগর  বিওপি

৩৩,৮১,৭৫০/-

৫০,৭২,৮০০/-

৮৪,৫৪,৫৫০/-

০৬

০৯

১৫

সিংগারবিল বিওপি

--

--

--

--

--

--

 

      মোট

৩৭,৯৯৪০০ /-       

৫০,৮২,৮৮৫ /-

৮৮,৮২২৮৫/-

০৮

২৩

৩১

 

      

উদ্ধারকৃত মালামাল গুলো হল, পাতার বিড়ি, ব্যাগপাইপার, হিমেন হুইস্কি, আইকন হুইস্কি, বাইসাইকেল, রিকোডেক্স, জটগাজা,  ফেন্সিডিল, বাংলাদেশী ঔষুধ, হাসেঁর ডিম, চোলাই মদ, বাংলাদেশী মাছ  ইত্যাদি।

 

সভায় অন্য কোন আলোচনা না থাকায়  সকলকে চোরাচালান রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়ে এবং সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষণা  করা হয়। 

 

     

(ড. আশরাফুল আলম)

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১৩-                                                তারিখঃ ২৯/০৫/২০১৩খ্রিঃ

 

অনুলিপি সদয় অবগতির জন্যঃ

০১.মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০৩  ও মাননীয় জাতীয়  সংসদ সদস্য, ব্রাহ্মণবাvাড়য়া-০১

০২. জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ।

০৩. অধিনায়ক, ১২ বর্ডার গার্ড, বাংলাদেশ, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪.পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া।

০৫. উপ-পরিচালক,মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

অনুলিপি অবগতি ও কার্যার্থেঃ

০১. উপজেলা........................................................অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২.চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর/পাহাড়পুর/সিংগারবিল/ ইউনিয়ন পরিষদ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. কোম্পানী  অধিনায়ক,.............................................বি,ও,পি, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব...................................................................., বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

(ড. আশরাফুল আলম)

সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

পরিশিষ্ট- ‘ক‘‘

সভায়  উপস্থিত সদস্যবৃন্দঃ

ক্রমিক নং                      নাম                                                                   পদবী

০১. জনাব ড.আশরাফুল আলম                                    উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০২. জনাব মোঃ রসুল নিজামী                                     অফিসার ইন-র্চাজ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৩. জনাব মোঃ আল মামুন                                       চেয়ারম্যান, বিষ্ণপুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৪. জনাব মোঃ মনিরুল ইসলাম                                  চেয়ারম্যান, সিংগারবিল ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৫. জনাব কাজী মাইন উদ্দিন                                     চেয়ারম্যান, পাহাড়পুর ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৬.জনাব সুবেদার প্রভানন্দ রিহিন                                কোম্পানী কমান্ডার, মুকুন্দপুর বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৭. জনাব হাবিঃ মোঃ শফিউর রহমান                          আলীনগর ক্যাম্প বি ও পি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৮. জনাব মোঃ হানিফ খাদেম                                    উপজেলা আনসার ও ভি ডি পি কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

০৯. জনাব মোঃ আসাদুজ্জামান খান                               উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

সভায় বলেন সে চোরাচালান অব্যাহত আছে।

 

সীমান্ত  এলাকার সকলের সহযোগিতায় চোরাচালান প্রতিরোধের মতামত ব্যক্ত করেন। চন্ডিদ্বার, কসবা সদর, মাদলা ,মইনপুর এলাকায় বিজিবি বাহিনীর টহল জোরদার করার জন্য সভায় আহবান জানান হয়। কসবা পৌরসভাধীন খারপাড়া ও কসবা মহিলা মাদ্রাসা এলাকায়  অভিযান পরিচালনার জন্য সভায় আহবান জানানো হয়। টাস্কফোর্সের মাধ্যমে আসামী গ্রেফতারের জন্য বিওপি প্রধান সভায় মত প্রকাশ করেন।

মেয়র, কসবা পৌরসভা, কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সভায় অনুপস্থিত থাকায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন এবং আগামী সভায় পূর্ণাঙ্গ তথ্য সহ উপস্থিত থাকার আহবান জানান। ভারত থেকে পাচার হয়ে আসা ফেন্সিডিল সহ অন্যান্য মাদক দ্রব্যের বিষয়ে সংশ্লিষ্ট এলাকার বিওপি প্রধানকে দায়ী করেন। বিজিবি বাহিনীর সাথে  পুলিশ বাহিনীকে  চোরাচালান  প্রতিরোধে আন্তরিকতার সাথে কাজ করার জন্য আহবান জানান।

ভাইস- চেয়ারম্যান, কসবা উপজেলা পরিষদ, নবনির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যানদের স্বাগত জানিয়ে চোরাচালানের বিষয়ে বক্তব্য প্রদান করেন। ফেন্সিডিল, মদ, গাজাসহ অন্যান্য মাদক দ্রব্য পাচার হয়ে আসছে বলে সভায় উল্লেখ করেন। এ বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য বিজিবি ও পুলিশ বাহিনীকে অনুরোধ করেন।

 জনাব মোঃ রহুল আমিন ভূঞা বকুল, চেয়ারম্যান কসবা উপজেলা পরিষদ সভায় জানান চোরাচালান প্রতিরোধে সীমান্ত এলাকার নেতৃস্থানীয় ব্যক্তি বর্গের সহযোগিতা নেয়ার জন্য বর্ডার গার্ডের প্রতি আহবান জানান এবং বর্ডারগার্ডকে সহযোগিতা করার অনুরোধ করেন। বিজিবি বাহিনী ও পুলিশ বাহিনীকে প্রকৃত  চোরাকারবারী ও মাদকসেবীদেরকে গ্রেফতারের আহবান জানান। বায়েক ইউনিয়নের চারুয়া নামক স্থানে ১২ তারিখ রাতে ধৃত চোরাইমাল থানায় জমা হয়নি ও আসামীদের ধরা হয় নি মর্মে তিনি সভাকে অবহিত করেন। পাচারের সাথে জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেফতারপূর্বক পাচার হওয়া মালামাল উদ্ধারের জন্য বিজিবি বাহিনীকে অনুরোধ করেন। ভারত থেকে নিম্নমানের সার পাচার হয়ে আসছে বলে সভায় তিনি জানান, যা ফসলের ক্ষতিকর। এ বিষয়ে পুলিশ ও বিজিবি বাহিনীকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য আহবান জানান।

মাছ পাচার প্রতিরোধের বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য বিজিবি বাহিনীকে অনুরোধ করেন। কাজীয়াতলার আঃ রহিমকে গ্রেফতারের জন্য সভায় গোসাইস্থল বিওপি প্রধানকে বলা হয়। হিল্টন নামক স্বাস্থ্যের ক্ষতিকর ঔষধ  আমদানী বন্ধের জন্য বিজিবি বাহিনী ও পুলিশবাহিনীকে সভায় বলা হয়। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার অনুপস্থিতিতে ওসি তদন্ত প্রয়োজনীয় তথ্যসহ সভায় উপস্থিত না থাকায় অসন্তোষ প্রকাশ করা হয় এবং পত্র লেখার বিষয়ে সভায়  আলোচনা করা হয়।

 

০৩। সার ও ডিজেল পাচার রোধকরণ

সভায় ডিজেল এবং সারের বিষয়ে আলোচনা করা হয়।

উপজেলায় যাতে ডিজেল ও সার পাচার না হয় এই বিষয়ে বিজিবি ও পুলিশের সাথে সীমান্তবর্তী ইউপি চেয়ারম্যানগণকে তৎপর থাকার জন্য অনুরোধ করা হয়।

সার ও ডিজেল যাতে সীমান্তের ওপারে পাচার হতে না পারে সে জন্য কঠোর নজরদারী করতে হবে।

 

 ১। কোম্পানী/বিওপি কমান্ডার,কসবা,চন্ডীদ্বার,মইনপুর,মাদলা,

গোসাইস্থল

২। ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা,

কসবা থানা।

৩। সীমান্তবর্তী   ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বৃন্দ।

 

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার

উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বিজয়নগর উপজেলার চোরাচালান কমিটির ফেব্রুয়ারী/২০১৩ খ্রিঃ মাসের সভার কার্যবিবরণী

 

সভাপতি  ঃ ড.আশরাফুল আলম

             উপজেলা নির্বাহী অফিসার

             বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

সভার স্থানঃ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভা কক্ষ।

সভার তারিখঃ ২৭/০২/২০১৩ খ্রিঃ সময় সকাল ১১.০০ ঘটিকা।

 

সভায় উপস্থিত সদস্যবৃন্দের তালিকা (স্বাক্ষরের ক্রমানুসারে) পরিশিষ্ট‘‘ক’’ তে ও অনুপস্থিত সদস্যদের তালিকা পরিশষ্ট‘‘খ’’ তে দেখানো হল।

 

উপস্থিত সকলকে স্বাগত জানিয়ে সভাপতি সভার কাজ আরম্ভ করেন। বিগত সভার কার্যবিবরণী  পাঠ করে শুনানো হয়। কার্যবিবরণীতে কোন সংশোধন না থাকায় সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয়।সভাপতি জানান যে, চোরাচালান অনেকটা হ্রাস পেয়েছে । তবে চোরাপথে এদেশ হতে মাছ ও ঔষুধ চোরাচালান হয়ে থাকে বলে সভাকে জানান । এ বিষয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের তাদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পালনের অনুরোধ জানিয়ে সভার কার্যক্রম শুরু করা হয়।

 

২।         অতঃপর আলোচ্যসূচী মোতাবেক চোরাচালান প্রতিরোধে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি), বিজয়নগর উপজেলার সীমান্তবর্তী ইউনিয়নের উপস্থিত ক্যাম্প কমান্ডারগণ কর্তৃক দাখিলকৃত তাদের কার্যক্রম সম্পকে নিম্নবর্ণিত ছক মোতাবেক প্রতিবেদনের উপর আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

             বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ(বিজিবি) ক্যাম্প এর বিভিন্ন অভিযানে জদ্বকৃত তালিকার বিবরণ (জানুয়ারী/১৩)ঃ

বিজিবি ক্যাম্প

আটককৃত মালের বিবরণ

অর্ন্তমুর্খী মূল্য

ধৃত আসামী

মোট মূল্য

অভিযানের সংখ্যা

 

 

 

 

 

 

আলীনগর ক্যাম্প

ভারতীয় ফেনসিডিল-৩২ বোঃ

ভারতীয় বিভিন্ন প্রকার হুইস্কি-১৮৫ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-৮ কেজি

ভারতীয় গুড়া গাজা-১ কেজি

--

---

৩,২১,৮০০/-

৯টি

সিংগারবিল

ভারতীয় হুইস্কি ৫৬ বোঃ,

ভারতীয় কেস্টল প্রাইড হুইস্কি ০৩ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল ১৫ বোঃ

ভারতীয় অক্সিসার চয়েচ হুইস্কি- ১২০ বোঃ,

বাংলাদেশী পুটি মাছ ০৭কেজি

বাংলাদেশী কার্পু মাছ ২৫কেজি

বাংলাদেশী টেংরা মাছ ০৭কেজি

ভারতীয় জট গাজা-১২ কেজি

ভারতীয় আইকন-১৬ বোঃ

ভারতীয় মাস্টার বিয়ার-১৪ বোঃ

ভারতীয় হিউম্যান বিয়ার-০৩ বোঃ

--

--

৩,৫৫,৮৫০/-

১০টি

 

মুকুন্দপুর

বাইসাইকেল-০১টি

হিমেল বি আর হুইস্কি-৪৬ বোঃ

ভারতীয় ব্যাগপাইপার ৩৪ বোঃ

আরতীয় আইকন-৩১ বোঃ

ভারতীয় পাতার বিড়ি ৮৪০ পেকেট

বাংলাদেশী হাসের ডিম- ২৪০টি

 

 

১,৬৪,৩০০/-

২৮টি

লক্ষ্মিপুর

ভারতীয় পাতার বিড়ি-৮৩২ পেকেট

--

 

৬৬,৫০০/-

৯০

 

বিষ্ণপুর

 

ভারতীয় গড ফাদার-২০ বোঃ

ভারতীয় এমসি ডুয়েলস-৩৭ বোঃ

ভারতীয় ফেনসিডিল-৯২ বোঃ

ভারতীয় জট গাজা-০৮ কেজি

ভারতীয় অফিসার চয়েস-২৩ বোঃ

ভারতীয় ব্যাগ পাইপার-২৫বোঃ

ভারতীয় কোরেষ্ট-৯৮ বোঃ

ভারতীয় পাতার বিড়ি-২০০ বোঃ

বাংরাদেশী টেংরা মাছ- ১২ কেজি

 

---/-

 

 

২,৮৭,৪০০/-

 

৯৩

 

            উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডারদের প্রতিবেদন উপর আলোকপাত করে সভাকে জানান যে, চোরাচালান মালামাল  ধরে মূল্য নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু পাচারকারীকে আটক করা হয়নি। মালামাল আটককালে ২/৩ টা আসামী ধরতে হবে। প্রয়োজন বোধে মোবাইল কোর্ট মাধ্যমে মালামালসহ আসামী আটক বিষয়ে বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডারগনকে পরামর্শ প্রদান করেন।

 

সিদ্ধান্তঃ চোরাচালান প্রতিরোধ অভিযানে মালামাল আটককালে আসামী আটক করার বিষয়ের  বিজিবি ক্যাম্প এর সকল কোম্পানী কমান্ডারগণকে অনুরোধ জানানো হয়।

বিজয়নগর থানা ঃ

 

            সভায় উপস্থিত অফিসার-ইন-চার্জ, বিজয়নগর থানা সভাকে জানান যে, চোরাচালান প্রতিরোধে থানার কার্যক্রম সর্বদা অব্যাহত রয়েছে। চোরাচালান অভিযানে মালামালসহ আসামী আটক করা হয়ে থাকে। থানার সর্বদা তৎপরতা অব্যাহত আছে বলে জানান।

 

সিদ্ধান্তঃ চোরাচালান পন্য সামগ্রী বিজয়নগর হতে পরিবহনকালে তাহার বিরুদ্ধে পুলিশী কার্যক্রম অব্যাহত রাখার  সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

 

সভায় উপস্থিত কমান্ডার, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড, বিজয়নগর সভাকে জানান যে, আউলিয়া বাজারে দেশীমাছ সহ বিভিন্ন জায়গা হতে প্রচুর মাছ বাজারে আমদানী করা হয়। তাছাড়া কয়েকজন লাইসেন্সধারী মাছ ব্যবসায়ী অন্য স্থান হতে বাজারে মাছ বিক্রয়ের জন্য বাজারে আনা হয়। তিনি অভিযোগ করেন, যে পরিমান মাছ বাজারে উঠানো হয় সে পরিমান ক্রেতা বাজারে সমাগম না ঘটলেও মাছ বাজার হতে চোরাপথে অন্যত্র মাছ পাচার হচ্ছে। যাদের  প্রয়োজন ১/২ কেজি তারা ও বাজার হতে মাছ প্রয়োজনের অতিরিক্ত  ক্রয় করে অন্য স্থানে  একত্রে করে সীমান্ত পথে পাচার  কাজে সহযোগিতা করছেন । উপস্থিত মুকুন্দপুর বিওপি’র বিজিবি ক্যাম্প কমান্ডার বাজার হতে মাছ পাচার বিষয়টি সত্য বলে জানান। ক্যাম্প কমান্ডার সভাকে জানান যে, বাজার হতে ৫ কেজি, ২ কেজি করে মাছ ক্রয় করে ক্রেতাগণ তাদের বাড়ীতে নিয়ে একত্রে করে তাহা পাচার কাজে সহযোগিতা করে থাকেন। যারা পাচার কাজে জড়িত বাজার কমিটির মাধ্যমে তাদের তালিকা তৈরী করা হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা সুবিধাজনক হবে বলে জানান।

সিদ্ধান্তঃ আউলিয়া বাজার হতে প্রয়োজনের  অতিরিক্ত মাছ ক্রয় করে যারা পাচার কাজে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় ।

 

            চোরাচালান প্রতিরোধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, সভাকে জানান যে, সীমান্তবর্তী ইউপি চেয়ারম্যানগন প্রতিরোধে বিজিবি  সদস্যদের আমন্ত্রন পত্র দিয়ে চোরাচালান সভা অনুষ্ঠান করা এবং সভার কার্যবিবরণী অত্রাফিসে প্রেরণ করার জন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানগনকে অনুরোধ জানান। প্রয়োজনবোধে স্থানীয় অন্যান্য গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের প্রতিনিধিদের নিয়ে সার্বিক সমন্বয়ের মাধ্যমে সভা অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাদি গ্রহণের বিষয়ে ও সভাপতি  সীমান্তবর্তী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানগনকে অনুরোধ জানান।

হয় ।

 

            পরিশেষে সভাপতি সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন ।

 

 

ড. আশরাফুল আলম

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

 

স্মারক নং ০০.৪২.০৫৬৬.০০০.০৬.০০৩.১২-৯১                                                 তারিখঃ ৩০/০১/২০১৩খ্রিঃ

অনুলিপিঃ

১। জেলা প্রশাসক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ( সদয় অবগতির জন্য)।

২। অধিনায়ক, ১২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন, সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

৩। পুলিশ সুপার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

৪। অফিসার-ইন-চার্জ, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

৫। চেয়ারম্যান,------------------------------ ইউপি, বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

ড. আশরাফুল আলম

উপজেলা নির্বাহী অফিসার

ও সভাপতি

উপজেলা চোরাচালান প্রতিরোধ কমিটি

বিজয়নগর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

 

 

সংযুক্তি

290415.pdf 290415.pdf
aine.pdf aine.pdf